• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০১:২৯ অপরাহ্ন |

২০১৮ সালে গার্মেন্টস এক্সেসরিজ থেকে আয় হবে ১২ বিলিয়ন ডলার

Amuঅর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক: ২০১৮ সালের মধ্যে গার্মেন্টস এক্সেসরিজ এন্ড প্যাকেজিং খাত থেকে ১২ বিলিয়ন ডলার আয় সম্ভব বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে উদ্যোক্তাদের পরিবেশ বান্ধব শিল্প কারখানা গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চারদিন ব্যাপী আর্ন্তজাতিক গার্মেন্টস এক্সেসরিজ ও প্যাকেজিং প্রদর্শনী ২০১৫ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা জানান।
বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ এন্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন (বিজিএপিএমইএ) এ প্রদর্শনীর আয়োজন করে।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, গার্মেন্টস এক্সসরিজ এন্ড প্যাকেজিং শিল্প একটি গুরুত্বপূর্ণ শিল্পখাত। এটি আমদানি বিকল্প এবং রপ্তানিমুখী শিল্প। তৈরি পোশাক শিল্পের ব্যাক-ওয়ার্ড লিংকেজ হিসেবে জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখছে। বর্তমানে এ শিল্পে প্রায় ২ লাখ শ্রমিক কর্মরত রয়েছেন।
মন্ত্রী জানান, এ খাতে প্রায় ১৩শ’ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এসব তৈরি শিল্প-কারখানায় উৎপাদিত ৩০ থেকে ৩৫ ধরনের পণ্য পোশাক শিল্পে সরাসরি ব্যবহার হচ্ছে।  অভ্যন্তরীণ চাহিদা মিটিয়ে এসব পণ্য বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে। ২০১৩-২০১৪ অর্থবছরে এ খাত থেকে ৪ দশমিক ৭৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার পণ্য রপ্তানি হয়েছে। এর পরিমাণ আরো বাড়াতে সকলকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।
উল্লেখ্য, এ শিল্পমেলায় ৩০টি দেশের ৩০০টি দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে।
বিজিএপিএমইএ’র সভাপতি রাফেজ আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মো. এমাজ উদ্দিন প্রামাণিক, অর্থপ্রতিমন্ত্রী এম. এ. মান্নান, বস্ত্র ও পাটপ্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, প্রদর্শনীর স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান হাসানুল করিম তমিজ, ভারতের এএসকে ট্রেড অ্যান্ড এক্সিবিশন (প্রা.) লিমিটেডের পরিচালক নন্দ গোপাল, বিজিএমইএ’র সহসভাপতি শহীদুল্লাহ আজিম প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ