• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০১:৩০ অপরাহ্ন |

ম্যাকগ্রার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক ছিল ওয়ার্নের!

indexখেলাধুলা ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা স্পিনার তিনি। তার স্পিন ঘূর্ণিতে এক সময় কাবু হতেন বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যান। তরুণ প্রজন্মের জন্য মডেলও বটে। কিন্তু সেই শেন ওয়ার্নের নামের পাশে আবারও যোগ হলো যৌন কেলেঙ্কারি! সত্যিই হতাশার সংবাদ, ৪৩ বছর বয়সী সিঙ্গল মাদার কিম ম্যাকগ্রার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন ওয়ার্ন!

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার এক জনপ্রিয় ম্যাগাজিনে সাক্ষাৎকার দেন কিম ম্যাকগ্রা। এরপর ওই খবর ছাপা হয়। সঙ্গে অনেক ছবিও থাকে। আর তাতে আবারও ক্রীড়াঙ্গনে এ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

সাক্ষাৎকারে কিম ম্যাকগ্রা বলেন, ‘ডিসেম্বরে আমার সঙ্গে ওয়ার্নারের কথোপকথন শুরু। ডেটিং অ্যাপস টিনডারের মাধ্যমে আমাদের কথাবার্তা হয়। তারপর আমরা একদিন দেখা করি। আমি তাকে আমার বাড়িতেও আমন্ত্রণ জানাই। এরপর শেন আমাকে অ্যাডিলেডের একটি হোটেলে একসঙ্গে রাত কাটানোর প্রস্তাব দেয়। এরপর আমি সেখানে যাই। সেখানেই আমাদের যৌনমিলন হয়। শেনের সঙ্গে ওই রাত কাটানোর অভিজ্ঞতা কোনো দিন ভুলব না আমি। বিছানায় শেন অসাধারণ!’

এরপর শেন ওয়ার্ন নাকি ভূয়সী প্রশংসা করেন ম্যাকগ্রার। এ বিষয়ে সিঙ্গল মাদার কিম ম্যাকগ্রার দাবি, ‘ওই রাতে ওয়ার্ন আমাকে জানায়, তার জীবনে বহু নারীর সংস্পর্শ এসেছে। কিন্তু তার দেখা আমি অন্যতম নারী যে কি না বিছানায় অসাধারণ!’

বাহ! পাল্টা প্রশংসায় একে অপরকে কাছে পাওয়ার কথা। কিন্তু কিমের মিষ্টি কথায় মন ভোলেনি ওয়ার্নের। এসব প্রেম, সম্পর্কের কথা সরাসরি অস্বীকার করেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন তারকা। নিজস্ব টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘এসব খবর দ্বিতীয়বার আর বলবেন না। আমার কোনো বান্ধবী নেই। আমি নিতান্তই একা!’

তিনি আরো লিখেছেন ‘সম্মান, সততা ও বিশ্বাস; এই তিনটি শব্দ আমার জীবনের মূলমন্ত্র। তবে যাদের কাছে এসবের কোনো বালাই নেই। তাদের লজ্জা হওয়া দরকার।’

উল্লেখ্য, শেন ওয়ার্নের নারীঘটিত খরব নতুন নয়। গতবছর সেপ্টেম্বরে মডেল এমিলি স্কটের সঙ্গে সম্পর্কের ইতি ঘটে। এরপর  একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এর আগে লিজ হার্লের সঙ্গেও তিন বছরের মতো সম্পর্ক ছিল তার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ