• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ১১:৩২ পূর্বাহ্ন |

ওসিসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা

39222_1ঢাকা: রামপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর তরফদার রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, চুরি ও কর্তব্যে অবহেলাসহ বিভিন্ন অভিযোগে আদালতে একটি মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার শামীমুন নাহার লিপি নামে এক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী ঢাকা সিএমএম আদালতে ওই মামলা দায়ের করেন।ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ ইউনুস খানর বেলা ১১টায় বাদীর অভিযোগের বিষয়ে প্রাথমিক শুনানির পর বেলা ৩টায় পূর্ণাঙ্গ শুনানির জন্য সময় নির্ধারণ করেছেন।মামলার অপর আসামিরা হলেন- রামপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) আলমগীর ভূইয়া, এসআই বাবুল, বাদীনীর ভাই আরিফুর রশিদ, ভাইয়ের স্ত্রী দুরদানা রশিদ, ভাইয়ের ছেলে শাহরিয়ার রশিদ, আরিফুর রশিদের বন্ধু হুমায়ুন ওরফে ল্যাংরা হুমায়ুন, তাজুল ইসলাম, কবির হোসেন কাজল ও মো. মাসুদ।মামলার অভিযোগে বলা হয়, আমেরিকা প্রবাসী বাদীর রামপুরা থানাধীন ৩০৫/এ ব্লক-বি খিলগাঁও তালতলায় প্রায় ১ কোটি টাকা মুল্যের পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া একটি ফ্ল্যাটসহ বিভিন্ন প্রপার্টি রয়েছে। বাদী যাতে ওই ফ্ল্যাটসহ অন্যান্য প্রপার্টি ভোগদখল না করতে পারেন এ জন্য বাদীর ভাই আরিফুর রশিদ, ভাইয়ের স্ত্রী দুরদানা রশিদ, ভাইয়ের ছেলে শাহরিয়ার রশিদ গত ২৪ আগস্ট তার ফ্ল্যাটের আসবাবপত্রে আগুন ধরিয়ে দেয়। যাতে বাদীর ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৮শ টাকার ক্ষতি হয়।বাদী খবর পেয়ে রামপুরা থানায় গেলে প্রাথমিকভাবে থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর বাদী থানায় মামলা করতে চাইলে ওসি মাহবুবুর ওসি তদন্ত আলমগীর ভূইয়া ও এসআই বাবুল মামলা ও জিডি নিতে অস্বীকার করে।পরবর্তীতে গত ১ জানুয়ারি উক্ত আসামিরা বাদীর বাসার তালা ভেঙে সেখানে প্রবেশ করে আসবারপত্র সরানোর কথা জানতে পেরে ফের থানায় যান এবং ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেন। কিন্তু ওসি মাহবুব বাদীর কাছে ব্যবস্থা নিতে ২০ লাখ টাকা দাবি করেন।বাদী টাকা দিতে অস্বীকার করে ফিরে এলে ওই ঘটনার ২ দিন পর গত ৪ জানুয়ারি বাদীর বিরুদ্ধে আসামি আরিফুর রশিদের জিডি গ্রহণ করেন।অনন্যোপায় হয়ে বাদী এ মামলাটি দায়ের করেছেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন শামীমুন নাহার লিপি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ