• শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন |

চট্টগ্রাম বন্দরে প্রবেশে অনুমতি মেলেনি উত্তর কোরীয় জাহাজের

022712titanic2_512x288সিসি নিউজ : উত্তর কোরিয়ার পতাকাবাহী একটি পণ্যবোঝাই জাহাজকে চট্টগ্রাম বন্দরে ভেড়ার অনুমতি দেয়নি কর্তৃপক্ষ। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা থাকায় এ অনুমতি দেয়নি বাংলাদেশ।

শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, এমভি জং ডি ওয়ান নামের ওই কার্গো জাহাজকে চট্টগ্রাম বন্দরে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, জাহাজটিকে চট্টগ্রাম বন্দরে ভিড়তে দেওয়া  হবে কি না, এ বিষয়ে জাতিসংঘের সদরদপ্তরের সুপারিশ জানার পর শুক্রবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বন্দরের সচিব ওমর ফারুক জানান, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে এ জাহাজকে বন্দর জলসীমায় পণ্য খালাসের অনুমতি দেওয়া হবে না।

উত্তর কোরিয়ার ওশান মেরিটাইম ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ওই জাহাজের মালিক। ভিয়েতনাম থেকে সিমেন্ট ক্লিংকার নিয়ে জাহাজটি সকালে বাংলাদেশ ভেড়ার অনুমতি চায়। কিন্তু উত্তর কোরিয়ার কোম্পানি হিসেবে ২০০৯ সালে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জারি করা নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকায় ওই কোম্পানির জাহাজটির বন্দরে প্রবেশের অনুমতি প্রত্যাখ্যাত হয়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা পণ্য পরিবহণের অভিযোগে গত বছর জুলাই মাসে ওশান মেরিটাইম ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিকেও নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হয়।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩ সালে কিউবা থেকে উত্তর কোরিয়ায় অস্ত্র পরিবহণে ওই কোম্পানির সংশ্লিষ্টতা ছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ওই জাহাজের ধারণ ক্ষমতা ৩৭ হাজার টন হলেও সেটি ৪৩ হাজার টন সিমেন্ট ক্লিংকার নিয়ে বন্দরে ভিড়তে চাইছিল।

ওই কর্মকর্তা আরো জানান, এর আগে পানামায় এ কোম্পানির একটি জাহাজে চালের আড়ালে ক্ষেপণাস্ত্র পরিবহণের একটি ঘটনায় ধরা পড়েছিল।

জাহাজটির দৈর্ঘ্য ২২৪ মিটার এবং জাহাজের পানির নিচের অংশের গভীরতার উচ্চতা (ড্রাফট) ১৩ দশমিক ২ মিটার। জাহাজটি বন্দরের জলসীমার অদূরে কুতুবদিয়ায় ভেড়ে বৃহস্পতিবার। এ ধরনের বড় আকারের জাহাজ সাধারণত কুতুবদিয়ার গভীর সাগরে লাইটার জাহাজে স্থানান্তরের মাধ্যমে পণ্য খালাস করে থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ