• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৮:৫১ অপরাহ্ন |

দিনাজপুরে রাবার ড্যামের ছোঁয়ায় পাল্টে গেছে এলাকার দৃশ্যপট

Dinajpur-Rabar Dem-01সিসি নিউজ: দেশের  সর্ববৃহৎ “মোহনপুর”রাবার ড্যামটি দিনাজপুরের দু’উপজেলাবাসীর জন্য আর্শিবাদ বয়ে এনেছে। এ বারার ড্যামের কারণে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির ছোঁয়ায়  পাল্টে গেছে এলাকার আর্থ-সামাজিক ও উন্নয়ন ব্যবস্থা।  মরু করণের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে  এ এলাকার প্রায় ১০ হাজার হেক্টর ফসলী জমি। প্রায় লক্ষাধিক কৃষক পাচ্ছে সেচ সুবিধা। উৎপাদিত হচ্ছে প্রায়  ৭ হাজার মেট্রিক টন অতিরিক্ত খাদ্য শষ্য। এছাড়াও হয়েছে মাছ চাষের সু-ব্যবস্থা। এতে মিটছে এসব পরিবারে মৌলিক চাহিদা।
দিনাজপুর জেলা শহর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার পূর্বে সদর উপজেলার ৮নং শংস্করপুর ইউনিয়নের মোহনপুর আত্রাই নদীর উপর নির্মিত হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ মোহনপুর রাবার ড্যাম। প্রায় ১৭ কোটি টাকা ব্যয়ে এলজিইডি’র তত্বাবধানে ২০১১ সালে শুরু হওয়া এ রাবার ড্যামটি’র কাজ ২০১৩ সালের ২২অক্টোবর শেষ হয়। এ বারার ড্যামটি বাস্তবায়িত হওয়ায় আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির ছোঁয়ায়  পাল্টে গেছে এলাকার আর্থ-সামাজিক ও উন্নয়ন ব্যবস্থা।  মরু করণের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে  এ এলাকার প্রায় ১০ হাজার হেক্টর ফসলী জমি। চিরিরবন্দর উপজেলার চেন্টুবটতলা এলাকার কৃষক নরেন্দ্র রায় জানালেন,খরা মৌসূমে তার এলাকার অধিকাংশ জমি পরে থাকতো অনাবাদি অবস্থায়। রাবার ড্যামের সুবাদে তাদের জমিতে এখন সবুজের সমারোহ। তারা আবাদ করতে পারছে। সদর উপজেলার পাঁচবাড়ী এলাকার কৃষক আব্দুল গনি’র ভাষায় রাবার ড্যাম তাদের এখন আল্লাহ’র আর্শিবাদ। তাদের মরা জমি জেগে উঠেছে। অল্প পাইপে কলকুপে পানি উঠছে।প্রায় লক্ষাধিক কৃষক পাচ্ছে সেচ সুবিধা। উৎপাদিত হচ্ছে প্রায় ধান,গম,সব্জি ও মসলা জাতীয় ফসলসহ  ৭ হাজার মেট্রিক টন অতিরিক্ত খাদ্য শষ্য।
শুধু কৃষি সেক্টরে উন্নয়ন নয়, এ রাবার ড্যাম বাস্তবায়িত হওয়ায় এলাকায় মৎস্য চাষের অভারণ্য সৃষ্টি হয়েছে। ফসল উৎপাদনের পাশাপাশি এ রাবার ড্যামের ফলে আত্রাই ও কাকড়া নদীর ৪৪ কিলোমিটার দীর্ঘ পানিতে হয়েছে মাছ চাষের সু-ব্যবস্থা। এতে মিটছে এসব পরিবারে মৌলিক চাহিদা। এমনটাই মন্তব্য মৎস্যজীবী মকবুলের।
কৃষি নির্ভর এ জেলার দরিদ্র-প্রান্তিক চাষীদের সেচ সুবিধা নিশ্চিত করতে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি’র হস্তক্ষেপে বাস্তবায়িত হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ এ রাবার ড্যামটি।  হুইপ ইকবালুর রহিম জানান,উত্তরবঙ্গের কৃষি নির্ভর জনপদ দিনাজপুর। আমাদের অর্থনীতি কৃষির উপর নির্ভরশীল। এ এলাকার কৃষকরা গরীব ও প্রান্তিক চাষী। শুস্ক মৌসূমে পানির অভাবে তারা আবাদ করতে পারেনা। আমার স্বপ্ন ছিলো যাতে শুস্ক মৌসূমে যাতে আমরা আবাদ করতে পারি। সে কারনেই বাংলাদেশের সর্ব বৃহৎ রাবার ড্যাম আমারা দিনাজপুরের মোহনপুরে আমরা স্থাপন করেছি। এই রাবার ড্যামটি নির্মাণ হওয়ার ফলে এ অঞ্চলের ১০ হাজার হেক্টর জমি’র অতিরিক্ত ফসল আবাদ হবে প্রতিবছর এবং এখান থেকে প্রায় ১০ হাজার কৃষক উপকৃত হবে। বাংলাদেশের কৃষি অর্থনীতিতে এই রাবার ড্যামটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।
এ রাবার ড্যামের থেকে সেচ সুবিধা নিতে কৃষকদের দিতে হচ্ছে না কোন অতিরিক্ত খরচ। এতে কৃষকরা আর্থিকভাকে লাভবান হচ্ছে। এক’শ ৩৫ মিটার দৈর্ঘ্যওে এই রাবার ড্যামটির আয়ুস্কাল ২৫ বছর।  এ রাবার ড্যামটি সদর ও চিরিররন্দর উপজেলাবাসীর জন্য আর্শিবাদ বলে জানিয়েছেন দিনাজপুর এলজিইডি;ও নির্বাহী প্রকৌশলী খলিলুর রহমান।
দেশে’র সর্ববৃহৎ এ রাবার ড্যামটি যেমন কৃষি সেক্টরে বিপ্লব সাধিত করেছে, তেমনি ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটিয়েছে দু’উপজেলাবাসী’র।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ