• শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৭:২১ অপরাহ্ন |

চাঁদপুরের বাবুরহাটের জেলা পরিষদ যাত্রী ছাউনি

IMG_1422চাঁদপুর প্রতিনিধি: অবশেষে বহুল আলোচিত বাবুরহাটের জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনি দখল করা হয়েছে। মুখোশের আড়াঁলে রয়েছে দখলদারের নাম, খলনায়কের ভূমিকায় আছেন তিনি । জেলা পরিষদ ও জানেনা কে বা কারা দখল করেছে মতলব রোডস্থ যাত্রী ছাউনি। এ নিয়ে এলাকায় চলছে ব্যাপক তোলপাড়, গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সচেতন মহল ও বাস যাত্রীদের তোপের মুখে সকলের চোখের সামনে যাত্রীদের বাসার সিট ভেঙ্গে দোকানে পরিনত করছেন দখলকৃত ব্যাক্তিবর্গ, এর আগে গত বুধবার সকলের চোখের অন্তরালে লাগানো হয় সাটার। এরা কারা, এদের খুঁটির জোর কোথায় !। জানতে চায় সচেতন মহল। তাৎক্ষনিক বিষয়টি জেলা পরিষদের কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলেও নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছেন তারা। দখলকৃত যাত্রী ছাউনি অবমুক্ত চায় যাত্রী সাধারন ও এলাকাবাসী। কিন্তু কিভাবে করবে অবমুক্ত ঘরের ইঁদুর, ঘরের বান কাটার গল্পে পরিনত বাবরহাটের জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনি। ঘটনার বিবরনে জানাযায় গত বছর ২০১৪ সালের ২১ মে জৈনিক এক ব্যাক্তি লিজ নিয়ে দখল করার সময় স্থানীয় জনগন ও বাস যাত্রী একত্রিত হয়ে জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনি দখল অবমুক্ত করার লক্ষে আন্দোলন করলে সটকে পড়ে তারা। তখন জেলা পরিষদের কিছু কর্মকর্তা সেখানে গেলে জনসাধারনের তোপের মুখে চলে আসে তারা। নাম প্রকাশে অনুচ্ছিক এ বিষয়ে গতকাল জেলা পরিষদের এক কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন দখলের বিষয়টি তার অবগত নয়, দখলের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেনা বলে সাব জানিয়ে দেয়, তবে তিনি আগামী রবিবারে জেলা পরিষদ গেলে সঠিক তথ্য দিতে পারবেন বলে জানান।
এ দিকে চাঁদপুর কুমিল¬া আঞ্চলিক মহা সড়কের মতলব পেন্নাই সড়কের মাথায় অবস্থিত জেলা পরিষদের যাত্রী ছাউনি একের পর এক দখল হওয়ার কারনে স্থানীয় সচেতন মহল ও উপস্থিত বাস যাত্রীরা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করছে। কিভাবে জেলা পরিষদকে ম্যানেজ করে হাজার হাজার যাত্রীদের জীবনকে ঝুঁকিতে পেলে তারা যাত্রী ছাউনি লিজের নামে নাটক করছে। এ গুরুতপূর্ন যাত্রী ছাউনি যাত্রীদের নিরাপত্তার সার্থে দখল অবমুক্ত করার জন্য আন্দোলন অব্যাহত রাখবেন বলে উপস্থিত বাস যাত্রীরা জানিয়েছে। আসছে বর্ষা কাল, মেঘ বৃষ্টির দিন, এ মেঘ বৃষ্টির দিনে তিন রাস্তার মহনার বাবুরহাটের যাত্রী ছাউনি না থাকার কারনে যাত্রীদের চরম দুর্ভাগে পড়তে হবে। তাই তারা এ যাত্রী ছাউনিকে অবমুক্ত করার জন্য জেলা প্রশাসক মোঃ ইসমাইল হোসেনসহ সকল প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ