• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১২:৪০ অপরাহ্ন |

জাতিসংঘের অধীনে তদন্ত চায় ২০ দল

BNP-20সিসি নিউজ: দেশে হত্যা-গুম-অপহরণের জন্য হুকুমের আসামি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনার বিচার হবে বলে হুঁশিয়ারি করেছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দল।

বিচারবহির্ভূত হত্যা, মানবাধিকার লঙ্ঘন, পেট্রলবোমাসহ সব নাশকতার বিষয়ে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে আন্তর্জাতিক তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে সরকারবিরোধী জোটটি।

শুক্রবার ২০ দলীয় জোটের পক্ষে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানান।

সালাহ উদ্দিন বলেন, “সরকারপ্রধানসহ নেতা-মন্ত্রীরা অবিরাম মিথ্যাচার করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে নাশকতা ও জঙ্গিরূপে উপস্থাপনের চেষ্টা করছেন। সরকারদলীয় লোকজন ও এজেন্টরা সুপরিকল্পিতভাবে পেট্রল বোমাবাজিসহ অন্যান্য নাশকতায় ধরা পড়লেও তাদের ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। গতকাল ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়বস্তু নিয়ে মিথ্যাচার করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জাতিকে বিশ্বের কাছে লজ্জিত করেছেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানাই।”

চলমান আন্দোলনে সব নাশকতা ও পেট্রলবোমায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সুষ্ঠু তদন্ত চেয়ে বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়, “রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিরোধীদলীয় রাজনৈতিক নেতা-কর্মীসহ নিরপরাধ মানুষকে ধরে নিয়ে হত্যা, গুম, অপহরণ এবং গুলি করে পঙ্গু বানাচ্ছে। তার প্রতিটি কর্মকাণ্ডের জন্য হুকুমদাতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী দায়ী থাকবেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্তাব্যক্তিরা ঘোষণা দিয়ে নরহত্যায় লিপ্ত। তাতে দেশে নাগরিকদের নিরাপত্তাহীনতা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছেছে।”

সালাহ উদ্দিন বলেন, “আমরা নাশকতা, পেট্রলবোমা, সব বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের কর্তৃক সংঘটিত সব গুম, খুন, অপহরণ, বন্দুকবাজি ও মানবতাবিরোধী অপরাধের আন্তর্জাতিক পর্যায়ের তদন্ত চাই জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে।”

বিবৃতিতে বলা হয়, ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন প্রহসনের’ নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক ভুল করেছে। তার মাশুল প্রধানমন্ত্রীকে ও আওয়ামীলীগকে দিতে হবে। জাতি তার দায় নিবে না।

সালাহ উদ্দিন বলেন, “জাতিসংঘসহ বিশ্বসম্প্রদায়ের স্বীকৃতিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা আঁকড়ে থাকায় যে রাজনৈতিক মহাদুর্যোগের সৃষ্টি হয়েছে, সেই দুর্যোগ থেকে জাতিকে উদ্ধার করার জন্য আমি প্রধানমন্ত্রীকে অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় ব্যবস্থায় নির্বাচনের ঘোষণা দেয়ার জন্য আবারও আহ্বান জানাচ্ছি।”

বিবৃতিতে জানানো হয়, নির্দলীয় সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য জাতীয় সংসদ নির্বাচন, জনগণের ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে; বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীদের গুম-খুন-অপহরণ-গণগ্রেফতারের প্রতিবাদসহ বিভিন্ন দাবি ও প্রতিবাদে আগামী রোববার থেকে ৭২ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ২০ দল।

চলমান অবরোধের পাশাপাশি রোববার সকাল ছয়টা থেকে বুধবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত দেশব্যাপী এই হরতাল চলবে। তা ছাড়া সোমবার জেলা-উপজেলা, থানা, পৌরসভা ও মহানগরের থানায় বিক্ষোভ মিছিল করবে ২০ দল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ