• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন |

২০১১ ফেরাতে চাই: শফিউল

119220খেলাধুলা ডেস্ক: আল আমিন হোসেনের পরিবর্তে দলে সুযোগ পেয়ে আজ (সোমবার) রাতেই অস্ট্রেলিয়ার বিমানে উঠছেন পেসার শফিউল ইসলাম। অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে বলে গেলেন নিজের লক্ষ্যের কথা। বললেন, ‘২০১১ বিশ্বকাপের স্মৃতি অস্ট্রেলিয়ায় আবারও ফিরিয়ে আনতে চাই।’

চার বছর আগে নিজ দেশের বিশ্বকাপে ক্রিকেটপ্রেমীদের মুখে হাসি ফুটিয়েছিলেন শফিউল ইসলাম। কখনও বল হাতে, আবার কখনও ব্যাট হাতে আবির্ভূত হয়েছিলেন দলের ত্রানকর্তা হিসেবে। ইনজুরির কারণে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল থেকে বাদ পড়ার পর বোলিং ওপেন করার মূল দায়িত্বই বর্তায় শফিউলের ওপর। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষেই নিজের জাত চেনান লিকলিকে গড়নের এই ছেলেটি। দখল করেন ৪ উইকেট। দলকে জিতিয়েই তবে মাঠ ছাড়েন তিনি।

তবে শফিউলের সবচেয়ে স্মরনীয় কৃতিত্ব হলো চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের অসাধারণ জয়ে ব্যাট হাতে অবদান রাখা। ২২৫ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিশ্চিত হেরে যাওয়া ম্যাচটিতে নবম উইকেট জুটিতে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে গড়েন অপরাজিত ৫৮ রানের জুটি। করেছিলেন অপরাজিত ২৪ রান। তার ওই ইনিংসের জন্যই সেদিন ইংলিশদের বিপক্ষে অসাধারণ জয়টি পেয়েছিল বাংলাদেশ। যদিও ওই ম্যাচে সেরা হয়েছিলেন ইমরুল কায়েস।

তবে, এবারের বিশ্বকাপের দলে না থাকার কারণে খুবই হতাশ হয়ে পড়েছিলেন শফিউল। ছিলেন ৩০ সদস্যের প্রাথমিক দলেও। কিন্তু ১৫ জনের দলে ঠাঁই হয়নি তার। রাখা হয়েছিল স্ট্যান্ডবাই হিসেবে। সেখান থেকেই বিশ্বকাপের মাঝপথে এসে কপাল খুলে গেলো বগুড়ার ২৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের।

শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য বহিস্কৃত আল-আমিন আজই মেলবোর্ন থেকে দেশের বিমানে উঠে গেছেন। পরিবর্তে সুযোগ পেলেন শফিউল। শফিউল বলেন, ‘১৫ জনের দলে যখন নিজের নাম দেখতে পাইনি, তখন কিছুটা হতাশ হয়েছিলাম। তবে এখন খুশি, কারণ দলের সঙ্গে যোগ দিতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছি। বিশ্বকাপের দলে যুক্ত হতে পেরে সত্যিই নিজেকে খুব ভাগ্যবান মনে হচ্ছে। আমি চাই গত বিশ্বকাপের সেরা মুহূর্তগুলো এবারের বিশ্বকাপেও ফিরিয়ে আনতে। তবে হঠাৎ এভাবে ডাক পাবো, ভাবতেই পারিনি। তবে এবার দায়িত্ব বেড়ে গেল আমার। যদি সেরা একাদশে খেলার সুযোগ পাই, তাহলে নিজের সেরাটা ঢেলে দিয়ে খেলার চেষ্টা করবো।’

গত জিম্বাবুয়ে সিরিজেও খেলেছিলেন শফিউল। তবে মাত্র এক ম্যাচে। ২.১ ওভার বল করার পরই উরুর আঘাতের কারণে মাঠের বাইরে চলে যেতে হয় তাকে। এরপর থেকে অবশ্য ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে ৬ উইকেট নিয়েছেন তিনি। ৫২ ম্যাচে ৫৮ উইকেট নিয়েছেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ