• সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০২:২২ পূর্বাহ্ন |

দক্ষিণ সুদানে ‘শিশু সেনা’ বাড়ছে

SUDAN-1425220539আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দক্ষিণ সুদানে শিশু সেনা বেড়ে চলেছে। শিশুদের অপহরণ করে তাদেরকে সেনা প্রশিক্ষণ দিয়ে অস্ত্র তুলে দেওয়া হচ্ছে হাতে। এর জন্য দেশটির সরকার ও বিদ্রোহী জঙ্গিগোষ্ঠী উভয়কেই দায়ী করেছে জাতিসংঘের শিশু অধিকারবিষয়ক সংস্থা ইউনিফেস।

রোববার বিবিসি অনলাইনের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এক বিবৃতিতে ইউনিসেফ জানিয়েছে, গত মাসে অর্থাৎ ফেব্রুয়ারিতে ৮৯ শিশু অপহৃত হয় দেশটিতে। এসব শিশুকে সেনাসদস্য হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। শিশু অপহরণের জন্য সরকারের মদদপুষ্ট একটি জঙ্গিগোষ্ঠীকে বিশেষভাবে দায়ী করেছে শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করা জাতিসংঘের এই সংস্থা।

দক্ষিণ সুদানে গৃহযুদ্ধ চলছে। ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট সালভা কির-এর সরকারি বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ জারি রেখেছে প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি রিয়েক মাচের সমর্থকরা। উভয় পক্ষে জঙ্গিরা সক্রিয়া ভূমিকা পালন করে। সরকার ও বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে শিশু সেনা ব্যবহারের অভিযোগ তুলেছে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ।

দক্ষিণ সুদানে ইউনিসেফের প্রতিনিধি জোনাথন ভেইৎচ বলেছেন, ‘শিশুরা শ্রেণিকক্ষ থেকে সম্মুখ সমরে যাচ্ছে, এখানেই আমাদের ভয়।’

এদিকে প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ইউনিসেফ জানিয়েছে, ১২ শিশুকে অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিতে দেখা গেছে। তেলসমৃদ্ধ অপার নিল রাজ্যের ওয়াউ শিলুক শহর থেকে বেশির ভাগ শিশু অপহরণের শিকার হচ্ছে।

জাতিসংঘ আরো জানিয়েছে, তাদের বিশ্বাস গত বছর কমপক্ষে ১২ হাজার শিশুকে সামরিক কাজে ব্যবহার করা হয়েছে।

দক্ষিণ সুদানে দীর্ঘ গৃহযুদ্ধের ফলে প্রায় ১৫ লাখ মানুষ ঘরছাড়া হয়েছে এবং ২৫ লাখ মানুষ প্রচন্ড খাদ্য সংকটে পড়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ