• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন |

ডিসিসি নির্বাচনে জাপার প্রার্থী চূড়ান্ত

Logo-1425650882সিসি ডেস্ক: তফসিল ঘোষণার আগেই ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রস্তুতি শুরু করেছে এইচ এম এরশাদের জাতীয় পার্টি। এরই মধ্যে দলটির মেয়র পদে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। আজ-কালের মধ্যেই তাদের নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছে দলটির নীতিনির্ধারণী সূত্র।

সূত্র জানায়, ডিসিসি নির্বাচনে মহানগর দক্ষিণে মেয়র প্রার্থী হিসেবে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলনকে চূড়ান্ত করা হয়েছে। উত্তরে চূড়ান্ত করা করা হয় পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি বাহাউদ্দিন আহম্মেদ বাবুলকে।

বৃহস্পতিবার মহানগরীর দুই অংশের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কয়েক দফা বৈঠকের পর তাদের মতামতের ভিত্তিতে পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ এ দুজনের নাম মেয়র প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করেন।

পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মহানগর উত্তরের সভাপতি এস এম ফয়সল চিশতী রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ডিসিসি নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ভালোভাবেই অংশ নিচ্ছে। ইতিমধ্যে আমাদের মেয়র প্রার্থীও চূড়ান্ত হয়ে গেছে। পার্টির চেয়ারম্যান আজ-কালের মধ্যে তাদের নাম ঘোষণা করে দলীয় সমর্থনের কথা জানাবেন।’

দলীয় সূত্র আরো জানায়, শুক্রবার মেয়র প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করার কথা ছিল। কিন্তু সকালে দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সাংগঠনিক সফরে ভোলা চলে যাওয়ায় নাম ঘোষণার তারিখ এক দিন পিছিয়ে গেছে। তিনি ঢাকায় ফিরলে শনিবার প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হতে পারে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রেসিডিয়াম সদস্য এস এম ফয়সল চিশতীর নেতৃত্বে মহানগর উত্তরের নেতারা বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় এরশাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। আর প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার নেতৃত্বে দক্ষিণের নেতারা রাতে এরশাদের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন। মূলত এসব বৈঠকেই মহানগর উত্তর-দক্ষিণের মেয়র প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত করা হয়। তা ছাড়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর ঠিক করাসহ সিটি নির্বাচনের বিভিন্ন বিষয় নিয়েও বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির এক প্রভাবশালী নেতা।

এদিকে, সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আগ থেকেই সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মাঠে ছিলেন দক্ষিণে কাজী ফিরোজ রশীদ এবং উত্তরে বাহাউদ্দিন আহম্মেদ বাবুল। দুজনই মহানগরীতে ব্যাপক প্রচার চালিয়েছেন। কিন্তু নির্বাচন স্থগিত হয়ে যাওয়ায় তাদের প্রচারও এক পর্যায়ে থেমে যায়।

সম্প্রতি নির্বাচন কমিশন আবারও ডিসিসি নির্বাচন অনুষ্ঠানের ঘোষণা দিলে জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থীরা তৎপর হয়ে ওঠেন। ডিসিসির দক্ষিণে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে নাম শোনা যায় প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও দক্ষিণের আহ্বায়ক সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন ও দক্ষিণের সেক্রেটারি জহিরুল আলম রুবেল। উত্তরে পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মহিলা পার্টির সভানেত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম, যুগ্ম মহাসচিব ও উত্তর সেক্রেটারি বাহাউদ্দিন আহম্মেদ বাবুল এবং মহিলা পার্টির সাধারণ সম্পাদিকা অনন্যা হোসেন মৌসুমী।

দলীয় সূত্র জানায়, জাতীয় পার্টি চেয়েছিল, দশম সংসদ নির্বাচনের মতো সরকারি দলের সঙ্গে সমঝোতা করে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের যেকোনো একটি মেয়র পদ বাগিয়ে নিতে। সে হিসেবে দক্ষিণে কাজী ফিরোজ এবং উত্তরে সালমা ইসলাম জাতীয় পার্টির মধ্যে সম্ভাব্য শক্তিশালী প্রার্থী ছিলেন। কিন্তু ক্ষমতাসীন দলের হাইকমান্ডের আপত্তির কারণে তাদের সে আশা ভেস্তে যায়। শেষ পর্যন্ত ডিসিসি নির্বাচনে সরকারি দলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতার হিসেব কষে মহানগর দক্ষিণে মিলন ও উত্তরে বাবুলকে মেয়র প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করা হয়।

মহানগর উত্তরের জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী বাহাউদ্দিন আহম্মেদ বাবুল বলেন, ‘আমাকে প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত করায় পার্টির চেয়ারম্যানের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে এনে স্যারের (এরশাদ) প্রত্যাশা পূরণ করব।’

তিনি আরো বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে আছি। সে হিসেবে এলাকাবাসী আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী আনিসুল হকের চেয়ে আমাকে বেশি মূল্যায়ন করবে।’

নির্বাচনে সরকারবিরোধী সেন্টিমেন্টও তার পক্ষে থাকবে বলে আশা করেন জাপার প্রার্থী বাহাউদ্দিন বাবুল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ