• রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন |

আবাসিক এলাকা থেকে প্লাস্টিক কারখানা সরাতে বললেন মন্ত্রী

Anwar-Hossain-Manju_ADB_19082014_005-e1410443006711ঢাকা: আবাসিক এলাকা থেকে কেমিক্যাল ও প্লাস্টিকের মতো দাহ্য শিল্প কারখানা অন্যত্র স্থানান্তরের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু। এ লক্ষ্যে পরিবেশগত ছাড়পত্র প্রদানের বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রোববার সচিবালয়ে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে পরিবেশ ও বনমন্ত্রী এসব কথা জানান। ডিসিসিআইয়ের সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

পরিবেশ ও বনমন্ত্রী বলেন, ‘বুড়িগঙ্গা, শীতলক্ষ্যা ও তুরাগ নদী থেকে বর্জ্য অপসারণসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাজ চলছে। এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য জাপান সরকার বাংলাদেশকে ৬ বিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা প্রদান করবে।’

ডিসিসিআই সভাপতি হোসেন খালেদ ব্যবসায়ীদের পক্ষে মন্ত্রীর কাছে বেশ কয়েকটি প্রস্তাবনা দেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে- শিল্প এলাকায় সেন্ট্রাল ইফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট (সিইটিপি) স্থাপনে পিপিপির মাধ্যমে উদ্যোগ গ্রহণ, পরিবেশ অধিদপ্তরের ল্যাবরেটরি ও গবেষণাগারে লোকবল বাড়ানো, কল-কারখানায় প্রতি ঘনমিটারে বায়ুর পরিমাণ প্রতি ৮ ঘণ্টায় ৫০০ মাইক্রোগ্রাম বহাল রাখা, ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা নিষ্কাশনে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ, শহরে পরিকল্পিত বনায়ন, বায়ুদূষণ রোধে পরিকল্পিত ব্যবস্থা গ্রহণ, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের কৌশলগত উদ্দেশ্য অর্জন মনিটর করার জন্য প্রয়োজনীয় ডাটাবেজ তৈরি, ঢাকার চারদিকের নদীগুলো দূষণমুক্ত করে চলাচলের উপযোগী করে তোলার জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ ও পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণে সবুজ শিল্পায়ন, বৃক্ষরোপনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনকারী ব্যবসায়ীদের জন্য ‘গ্রিন কাড’ প্রবর্তন এবং এ ধরনের কার্ড প্রাপ্ত ব্যবসায়ীদের জন্য কম করের সুবিধা প্রদানের পাশাপাশি ঋণের সুদের হার কম করার ব্যবস্থা প্রবর্তনের প্রস্তাব করা হয়।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের উপ-মন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, ডিসিসিআই ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি হুমায়ুন রশিদ, সহ-সভাপতি মো. শোয়েব চৌধুরী, পরিচালক মোহাম্মদ শাহজাহান খান, মো. সবুর খান, এ কে ডি খায়ের মোহাম্মদ খান, আলহাজ্ব আব্দুস সালাম, খন্দকার আতিক-ই-রাব্বানী, ওসমান গনি এবং ডিসিসিআই মহাসচিব এএইচএম রেজাউল কবির।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ