• মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০১:১০ অপরাহ্ন |

নীলফামারীতে ইউনিয়ন পরিষদের এলাকা পৌরসভায় অন্তর্ভূক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন

Nilphamari Picসিসি নিউজ: নীলফামারীর সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চারটি ওয়ার্ডের এলাকা পৌরসভায় অন্তর্ভূক্ত করার প্রতিবাদে নীলফামারীতে মানববন্ধন করেছে ওই ইউনিয়নের বাসিন্দারা ।
বুধবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ইটাখোলা ইউনিয়নবাসীর আয়োজনে ওই ইউনিয়নের ১, ২, ৩ ও ৪ ওয়ার্ডের অন্তত দুই সহস্রাধিক নারী-পুরুষ অংশ গ্রহণ করে সরকারের এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান।
সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইটাখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রশীদ মঞ্জু, ওই ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল কুদ্দুস, ২নং ওয়ার্ড সদস্য মজিবুল হক, ৩নং ওয়ার্ড সদস্য সাফিজুল ইসলাম, ৪নং ওয়ার্ড সদস্য আনোয়ার হোসেন প্রমূখ।
এসময় ইটাখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাফিজুর রশীদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আর্কষণ করে বলেন, ইটাখোলা ইউনিয়নের এই চারটি ওয়ার্ডের আংশিক এলাকা নীলফামারী পৌরসভার অন্তর্ভূক্ত করণের ফলে ইউনিয়নের কৃষি নির্ভর সাধারণ মানুষ প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ্য হবে। বাড়বে নিম্ন আয়ের মানুষদের করের বোঝা আর বঞ্চিত হবে ভিজিডি, ভিজিএফ, কাবিখাসহ সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনির সকল কর্মসুচী থেকে। আর এই চারটি ওয়ার্ডের আংশিক এলাকা পৌরসভায় অন্তর্ভূক্ত না হলেও কোন প্রকার নাগরিক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেনা এ ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ। তাই অতিদ্রুত এই সিদ্ধান্ত বাতিল করে ইটাখোলা ইউনিয়নবাসীর প্রাণের দাবি রক্ষা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহনের দাবি জানান তিনি।
মানববন্ধন শেষে ইটাখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চারটি ওয়ার্ডের আংশিক এলাকা পৌরসভায় অন্তর্ভূক্ত না করার দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসক মো. জাকীর হোসেনের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিষয়ক মন্ত্রী বরাবরে একটি স্মারক লিপি প্রদান করে ইউনিয়নটির জনপ্রতিনিধিরা।
স্মারক লিপি গ্রহণ করে জেলা প্রশাসক মো. জাকীর হোসেন জানান, যথাযথা প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বিষয়টির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্প্রতি নয়টি ওয়ার্ড নিয়ে বর্তমান নীলফামারী পৌরসভার সীমানা সম্প্রসারণ ঘটিয়ে সম্প্রতি গেজেট প্রকাশ করে। প্রকাশিত গেজেটে সম্প্রসারিত অংশে নীলফামারী সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের চারটি ওয়ার্ড ও টুপামারী ইউনিয়নের কয়েকটি ওয়ার্ডের অংশ বিশেষ অন্তর্ভুক্ত করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ