• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৫:৫১ পূর্বাহ্ন |

মতিঝিলে আগুন: পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি

Agunঢাকা: রাজধানীর মতিঝিলের দিলকুশায় মিয়া আমানুল্লাহ ভবনে (৬৩ দিলকুশা) অগ্নিকাণ্ডের হেতু ও নিয়ন্ত্রণে বেশি সময় নেওয়ার কারণ অনুসন্ধানে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে দমকল বাহিনী। দমকল বাহিনীর উপ-পরিচালক নুরুল হকের নেতৃত্বে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। দমকল বাহিনীর পরিদর্শক শাহজাদী সুলতানা জানান, রোববার সকালে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, দমকল বাহিনীর উপ-পরিচালক রফিকুল ইসলাম, উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল হালিম, রমনা জোনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার আব্দুল জলিল ও সিদ্দিক বাজার স্টেশনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, ‘মতিঝিলে দিলকুশার ওই বাণিজ্যিক ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ১৪ ঘণ্টা সময় লাগে। প্রথমে ভবনটির দ্বিতীয় তলায় এবং পরে তৃতীয় তলায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ভবনে আগুন লাগার কারণ ও আগুন নেভাতে সময় বেশি নেয়ার বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

শনিবার সোয়া ৩টার দিকে ৬৩ দিলকুশা মিয়া আমান উল্লাহ ভবনের বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেডের অফিস থেকে আগুনের সূত্রপাত। আগুনে দ্বিতীয় তলার পুরো অফিস কক্ষে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পরে দ্বিতীয় তলার আগুন ছড়িয়ে পড়ে তৃতীয় তলাতেও। তৃতীয় তলায় আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের শাখা অফিস।

১৪ ঘণ্টা চেষ্টার পর দমকল বাহিনীর কর্মীরা ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

দমকল বাহিনীর কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে রিমেথড পদ্ধতি ও ভেন্টিলেশন পদ্ধতি ব্যবহার করার পরও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে দীর্ঘ সময় লাগে।

দমকল বাহিনীর পরিচালক (অপারেশন) শাকিল নেওয়াজ বলেন, ‘আগুন দ্বিতীয় তলা থেকে তৃতীয় তলায় ছড়িয়ে পড়ে। ভেতরে প্রবেশে কোনো পথ না থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে সময় নেয় ফায়ার কর্মীরা। তাছাড়া কালো ধোঁয়ার কারণে টর্চ লাইটের আলোতে ভেতরের অবস্থা বোঝা যাচ্ছিল না।’

আগুন নেভাতে গিয়ে দমকল বাহিনীর সহকারী পরিচালক রফিকুল ইসলামসহ চারজন আহত হয়েছেন বলেও তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ