• মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন |

যৌতুকের দাবিতে চিলমারীতে স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা

Hottarচিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের চিলমারীতে যৌতুকের দাবী মেটাতে না পারায় এক গৃহবধূকে মারপিট ও অমানুষিক নির্যাতনের পর গলাটিপে হত্যার চেষ্টায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলা তুলে নিতে পাষন্ড স্বামী ও তার সহযোগীদের হুমকিতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে নির্যাতিতা স্ত্রী ও তারপর পরিবার।
জানা গেছে, উপজেলার সবুজ গ্রামের মোঃ শাহাবুদ্দিন আলীর কন্যা শাহানাজ বেগমের প্রায় ১৮ বছর পূর্বে বিয়ে হয় একই এলাকার গোলাপ উদ্দিনের পুত্র মমিনুল ইসলামের সাথে। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবীতে বিভিন্ন সময় মারপিট, জুলুম, নির্যাতন এবং সরকার পাড়া বেলের ভিটা এলাকার মৃত কালুমিয়ার স্ত্রী’র সাথে পরকীয়ার বাধা দেওয়ায় দিনের পর দিন চলতে থাকে এই নির্যাতন। স্বামী ও তার পরিবারের শত অত্যাচারের মধ্যে সংসার করাবস্থায় শাহানাজের গর্ভে জন্ম নেয় ৩ সন্তান। বিভিন্ন সময় যৌতুক লোভী স্বামী টাকা নেওয়ায় পরও কিছুদিন আগে আবারও ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবী করলে স্ত্রী শাহানাজ অপারগতা প্রকাশ করায় কিল, ঘুসি, লাথিসহ নির্যতন করে বাড়ি থেকে বাহির করে দেয়। অহসায় শাহনাজ অভাবী সংসার পিতার বাড়ি আশ্রয় নেয়। এবং পিতার বাড়িতে থাকা অবস্থায় ঘটনার দিন শাহনাজ মঙ্গলবার ৩ মার্চ প্রকৃতির ডাকে সারা দিয়ে বাহিরে আসলে পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা তার পাসান্ড স্বামী শাহানাজকে গলাটিপে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে আসামী মমিনুল রড দিয়ে শাহনাজের মাথায় আঘাত করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। স্থানীয় লোকজন রক্তাক্ত ও গুরুতর আহত অবস্থায় শাহানাজকে চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে শাহানাজের পিতা শাহাবুদ্দিন বাদি হয়ে চিলমারী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন অইনে মামলা দায়ের করেন। এদিকে মামলাটি তুলে নেওয়াসহ আসামীরা বিভিন্ন ভাবে হুমকি প্রদান করায় স্বাধীন ভাবে চলাচল ও মামলা পরিচালনা করতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে অসহায় শাহানাজনের পিতা শাহাবুদ্দিন সাংবাদিকদের জানান। এরিপোট লেখা পর্যন্ত গৃহবধু শাহানাজ চিলমারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আনিচ ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন এব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে এবং আসামী গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ