• রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১২:৫২ অপরাহ্ন |

ভারতের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৩০২ রান


ROHIT-1426747678 (1)
খেলাধুলা ডেস্ক : ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন আগেই পূরণ করেছে বাংলাদেশ। এবার স্বপ্ন দেখাচ্ছে সেমিফাইনাল।

বৃহস্পতিবার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) টস জিতে আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ৩০২ রান সংগ্রহ করেছে ভারত। ৩০৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করবে বাংলাদেশ।

ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৩৭ রান করেন রোহিত শর্মা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৫ রান আসে সুরেশ রায়নার ব্যাট থেকে। বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেন তাসকিন আহমেদ।

ব্যাট করতে নেমে ভারতকে ভালো সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও রোহিত শর্মা। উইকেটের সন্ধানে ইনিংসের ষষ্ঠ ওভার থেকেই এক প্রান্তে স্পিন আক্রমণ শুরু করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। শুরুতে সফলতা না আসলেও ইনিংসের ১৭তম ওভারে শিখর ধাওয়ানের উইকেট তুলে নেন সাকিব। সাকিবের বলে ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে শট খেলতে যান ধাওয়ান। ভারতীয় ওপেনার বল মিস করায় সুযোগটি কাজে লাগান উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম। ধাওয়ানকে স্ট্যাম্পিং করেন তিনি। ফলে ধাওয়ান-রোহিত শর্মার ৭৫ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙে। ৫০ বলে ৩০ রান করেন ধাওয়ান।

এরপর দলীয় ৭৯ রানে নতুন ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিকে সাজঘরের পথ দেখান রুবেল হোসেন। রুবেলের অফ স্ট্যাম্পের বাইরের একটি বলে শট খেলতে গিয়ে মুশফিকের গ্লাভসবন্দি হন কোহলি। ৮ বলে মাত্র ৩ রান করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তৃতীয় উইকেটে অজিঙ্কা রাহানেকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়েন এক প্রান্ত আগলে রাখা রোহিত শর্মা। তবে রাহানেকে ফিরিয়ে ৩৬ রানের জুটি ভাঙেন তাসকিন আহমেদ। রাহানেকে কভারে সাকিবের ক্যাচে পরিণত করেন তাসকিন। ৩৭ বলে ১৯ রান করেন রাহানে।

চতুর্থ উইকেটে প্রতিরোধ গড়েন রোহিত শর্মা ও সুরেশ রায়না। ইনিংসের ৪০তম ওভারে রুবেলের বলে আম্পায়ারের একটি ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্তের কারণে আউট হয়েও বেঁচে যান রোহিত! তখন রোহিতের সংগ্রহ ছিল ৯০ রান। রুবেলের ফুলটাস বলে ডিপে ইমরুল কায়েসকে ক্যাচ তুলে দেন রোহিত। কিন্তু হাইটের কারণে তা নো বল কল করেন পাকিস্তানি লেগ আম্পায়ার আলিম দার। পরে ইংল্যান্ডের আম্পায়ার ইয়ান গোল্ড সেটা নো বল ঘোষণা করেন। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটি মোটেই নো ছিল না! আম্পায়ারের কল্যাণে নতুন জীবন পেয়ে সেঞ্চুরি করেন রোহিত। অবশ্য রায়নাকে ফিরিয়ে ১২২ রানের জুটি ভাঙেন মাশরাফি। ৬৫ রান করা রায়নাকে মুশফিকের গ্লাভসবন্দি করান বাংলাদেশ অধিনায়ক।

দলীয় ২৭৩ রানে সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মাকে বোল্ড করেন তাসকিন। ১২৬ বলে ১৪ চার ও ৩ ছক্কায় ১৩৭ রান করেন রোহিত। ইনিংসের ৪৯তম ওভারের শেষ বলে দলীয় ২৯৬ রানে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ফেরান ওই তাসকিন। শেষ পর্যন্ত ২৩ রানে অপরাজিত থেকে ভারতের স্কোর ৩০০ রান পার করেন রবিন্দ্র জাদেজা।

এই ম্যাচে বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন এসেছে। তাইজুল ইসলামের পরিবর্তে দলে ফিরেছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।

বাংলাদেশ দল: মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, ইমরুল কায়েস, তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান রুম্মান, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ।

ভারতীয় দলে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

ভারতীয় দল: শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানে, সুরেশ রায়না, মহেন্দ্র সিং ধোনি, রবিন্দ্রর জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, মোহাম্মদ সামি, মোহিত শর্মা ও উমেশ যাদব।

বিশ্বকাপের এ আসরে এখন পর্যন্ত অপরাজিত দল ভারত। গ্রুপ পর্বে ছয় ম্যাচের সবগুলোতেই জেতে মহেন্দ্র সিং ধোনি দল। বাংলাদেশও কম যায়নি। শ্রীলঙ্কার কাছে হার ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচ পরিত্যক্ত হলেও আফগানিস্তান, স্কটল্যান্ড ও ইংল্যান্ডকে হারিয়ে শেষ আটে ওঠে বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকেও কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন টাইগাররা।

এদিকে আজ নিজেদের ৩০০তম ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। টাইগাররা তাদের ১০০ ও ১৫০তম ম্যাচে এই ভারতকেই পরাজিত করে। আজ ৩০০তম কী হয়, সেটাই দেখার বিষয়!

বিশ্বকাপে এর আগে দুইবার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত। ২০০৭ বিশ্বকাপে পোর্ট অব স্পেনে বাংলাদেশ ৫ উইকেটের ঐতিহাসিক জয় পায়। আর ২০১১ বিশ্বকাপে ঢাকায় ৮৭ রানে জেতে ভারতীয়রা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ