• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে পূর্ব শক্রতার জেরে যুবককে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো হতে পারে : রেলমন্ত্রী জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জাপার দুইদিনের কর্মসূচি প্রেমিকাকে রেললাইনের ধারে দাঁড় করিয়ে ট্রেনের নিচে প্রেমিকের ঝাপ ফুলবাড়ীতে কোরিয়ান মেডিকেল টিমের ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প উদ্বোধন বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাতিজির অনশন সৈয়দপুর খাদ্য গুদাম শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার খানসামায় ট্রাক ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ পাঁচ বছরেও শেষ হয়নি ১৭৫ মিটার সেতুর কাজ: ভোগান্তি লক্ষাধিক মানুষের বৈঠকের মধ্য দিয়ে পাকেরহাটে যাত্রা শুরু করলো শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদ

বাজে আম্পায়ারিং নিয়ে যা লিখছে ভারতের পত্রিকাগুলো

Umpire_Rohit-1426858118খেলাধুলা ডেস্ক : ‘নো বলের সিদ্ধান্তটি ছিল ফিফটি ফিফটি সম্ভাবনা। মাঠে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। আর সেই সিদ্ধান্তকে সম্মান করা উচিত।’ বাজে আম্পায়ারিং নিয়ে আইসিসির সভাপতি আ হ ম মুস্তফা কামালের করা সমালোচনার প্রত্যুত্তরে এ মন্তব্যটি করেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন।

তার মানে বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে কোনো আম্পায়ার একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত দেবেন, আর সেটা মাথা পেতে মেনে নেবেন সবাই! এটা চোখ কপালে ওঠার মতোই ব্যাপার। বড়ই ঔদ্ধত্যপূর্ণ মন্তব্য। এ সব কথা আসলে রিচার্ডসনের মতো সংগঠকের মুখেই ভালো মানায়!

ভারতকে সুবিধা দিয়ে ম্যাচ জয়ের অন্যতম নায়ক বনে যান পাকিস্তানের আম্পায়ার আলিম দার ও ইংল্যান্ডের ইয়ান গোল্ড! পাল্লা দিয়ে ভুল সিদ্ধান্ত দিয়ে বাংলাদেশকে হতাশায় ডুবিয়েছেন তারা। যেই ভারতকে সুবিধা দিলেন এই আম্পায়ারদ্বয়, সেই ভারতীয় মিডিয়াই কি না তাদের ধুয়ে ছেড়েছে।

ভারতের ক্রিকেট নিউজ পোর্টাল ক্রিকেটকান্ট্রি ডটকম লিখেছে, আম্পায়ারদের বাজে সিদ্ধান্তের ফায়দা নিয়ে রোহিত বাংলাদেশকে তুলোধুনা করেছে। ব্যক্তিগত ৯০ রানের মাথায় তার সাজঘরে থাকার কথা ছিল। তাই পরের রানগুলো  আলিম দারের ‘করুণার দান’। যা বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেওয়ায় ভূমিকা পালন করেছে। আম্পায়াররা একটু ধীরেই সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন। নকআউট পর্বের খেলায় এটা করলে কী এমন ক্ষতি হতো তাদের? সাধারণত আম্পায়াররা পরস্পরের সাথে সলাপরামর্শ করেই সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। তারা কনফিউসড হলে পারলে থার্ড আম্পায়ারের সঙ্গে আলাপ করেন। তবে এদিন আলিম দার ও ইয়ান গোল্ড যা করলেন, সেটা ক্রিকেটপ্রেমীদের কষ্টই বাড়াবে।

এদিকে, টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক রিপোর্টে জানানো হয়, ভারতের ম্যাচ জয়ের অন্যতম কারণ রোহিতকে বাঁচিয়ে দেওয়া আলীম দারের ‘উদারতা’! তার সেঞ্চুরিটা আম্পায়ারের ভুলেরই ফসল। শেষ পর্যন্ত যা বাংলাদেশের মনোবল ভেঙে দিয়েছে।

অপরদিকে, ‘ইন্ডিয়া ডটকম’ তাদের এক প্রতিবেদনে লিখেছে, রুবেলের  প্রাপ্যটা কেড়ে নিলেন আম্পায়াররা। তার নিশ্চিত উইকেট কেড়ে নিয়ে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে দূরে ঠেলে দিয়েছে। এদিন আলিম দারের আম্পায়ারিং ছিল ভয়ানক বাজে।

ভারতের ‘ওয়ানইন্ডিয়া’ নিউজ পোর্টালে লেখা হয়েছে, আলিম দারের ‘বিতর্কিত’ সিদ্ধান্তে ক্ষোভের ঝড় এখন গোটা ক্রিকেট বিশ্বে। প্রায় সবগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে ধিক্কার জানানো হচ্ছে। গ্যালারি থেকেও স্পষ্ট বোঝা গেছে, বলটা রোহিতের কোমরের উপর নয়, উরুতে আঘাত করত।

এ ছাড়া দিল্লির প্রখ্যাত সাংবাদিক এবং লেখক রাজদ্বীপ সারদেশাই তার টুইটবার্তায় লিখেছেন, ‘বলার মতো কি আছে, আলীম দার জিন্দাবাদ’!


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ