• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন |

নকলের অভিযোগে ৭০০ পরীক্ষার্থী বহিষ্কৃত

nokolআন্তর্জাতিক ডেস্ক : নকলের অভিযোগে একই সঙ্গে বহিষ্কৃত হলো সাড়ে ৭০০ শিক্ষার্থী। আর নকলে সহায়তা করার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছে ৩০০ জন।

এ ঘটনা বাংলাদেশের নয়। আমাদের প্রতিবেশী ভারতের ঘটনা। দেশটির বিহার রাজ্যে মাধ্যমিক স্কুলের সমাপনী পরীক্ষা চলছে। এই পরীক্ষা আমাদের দেশে এসএসসির সমমান।

বুধ ও বৃহস্পতিবার পরীক্ষাকেন্দ্রের জানালা দিয়ে নকল সরবরাহ করেছে পরীক্ষার্থীদের স্বজনেরা। বাবা, বন্ধু, বড় ভাই, ছোট ভাই, অন্যান্য স্বজন যে যেভাবে পেরেছে, পরীক্ষাকেন্দ্রে নকল সরবরাহ করে পরীক্ষার্থীদের সাহায্য করেছে।

নকল সরবরাহের কয়েকটি ভারত ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এসেছে। এতে দেখা যাচ্ছে, পরীক্ষার্থীকে নকল সরবরাহ করতে চার-পাঁচতলা স্কুল ভবনে কেউ দড়ি বেয়ে, কেউ এমনিতেই উঠে পড়েছেন। জানালা দিয়ে পরীক্ষার্থীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে নকল। এ ঘটনা নিয়ে ভারতজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও গরুত্ব পেয়েছে।

বিহারে মাধ্যমিক স্কুল সমাপনী পরীক্ষায় এবার প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। অধিকাংশ শিক্ষার্থীর মধ্যে নকলপ্রবণতা দেখা গেছে।

বিহারের শিক্ষামন্ত্রী পি কে শাহি এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, ‘এই ধরনের নকলপ্রবণতা সরকারের একার পক্ষে বন্ধ করা সম্ভব নয়। এ জন্য পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকদের সাহায্যের হাত বাড়াতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে। শুনেছি, একজন পরীক্ষার্থীকে নকলে সাহায্য করতে তার পরিবারের তিন-চারজন আসছেন। তাহলে সাহায্যকারীদের সংখ্যা দাঁড়ায় ৫০ থেকে ৬০ লাখ। এত মানুষকে মোকাবিলা করা অসম্ভব। এ জন্য পরীক্ষার্থীর পরিবারকে সচেতন হতে হবে। কারণ নকল দিয়ে সাহায্য করার নামে তারা তাদের সন্তানদেরই ভবিষ্যৎ নষ্ট করছে।’
তথ্যসূত্র : বিবিসি, এনবিসি ও আলজাজিরা অনলাইন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ