• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৪০ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে পূর্ব শক্রতার জেরে যুবককে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো হতে পারে : রেলমন্ত্রী জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জাপার দুইদিনের কর্মসূচি প্রেমিকাকে রেললাইনের ধারে দাঁড় করিয়ে ট্রেনের নিচে প্রেমিকের ঝাপ ফুলবাড়ীতে কোরিয়ান মেডিকেল টিমের ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প উদ্বোধন বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাতিজির অনশন সৈয়দপুর খাদ্য গুদাম শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার খানসামায় ট্রাক ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ পাঁচ বছরেও শেষ হয়নি ১৭৫ মিটার সেতুর কাজ: ভোগান্তি লক্ষাধিক মানুষের বৈঠকের মধ্য দিয়ে পাকেরহাটে যাত্রা শুরু করলো শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদ

সাইক্লোনের আঘাতে ভানুয়াতুর অর্ধেক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত!

jorআন্তর্জাতিক ডেস্ক :  ভয়ঙ্কর ও প্রলয়ঙ্করী গ্রীষ্মমন্ডলীয় সাইক্লোন পামের আঘাতে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্র ভানুয়াতুর অর্ধেক বাসিন্দা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। আজ শনিবার সংস্থাটি জানায়, ২২টি দ্বীপে প্রলয়ঙ্করী এ ঝড়ের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬ জনে দাঁড়িয়েছে। সাহায্য কর্মীরা ১৫টিতে দ্বীপে পৌঁছতে সক্ষম হয়েছেন। তারা নতুন নতুন এলাকাগুলোতে তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছেন। এক সপ্তাহ আগে প্রলয়ঙ্করী গ্রীষ্মমন্ডলীয় সাইক্লোন পাম ঘন্টায় প্রায় ২৫০ কিলোমিটার বেগে দ্বীপপুঞ্জের ওপর দিয়ে বয়ে গেছে। ঝড়ের আঘাতে দ্বীপ রাষ্ট্রটি লন্ডভন্ড হয়ে যায়।
অফিস ফর দ্য কোঅর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাফেয়ার্স (ওসিএইচএ) বলেছে, গ্রীষ্মমন্ডলীয় সাইক্লোন পাম ২২টি দ্বীপের ওপর দিয়ে বয়ে গেছে। এতে প্রায় ১ লাখ ৬৬ হাজার লোক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সংস্থাটি জানায়, খাবার ও পানির মজুদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত দ্বীপগুলোতে যে পরিমাণ খাবার অবশিষ্ট রয়েছে তাতে দুই সপ্তাহের মধ্যেই তা ফুরিয়ে যাবে।
সহায়তাকারী সংস্থাগুলো ঝড়ের পর বিশুদ্ধ পানি, খাবার, আশ্রয় ও স্বাস্থ্য সুরক্ষাকে প্রাধান্য দিয়েছে। ১৩ মার্চ রাতে ঝড়টি আঘাত হানে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দ্বীপরাষ্ট্রটির খাদ্য শস্যের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ওসিএইচএ বলেছে, ঝড়ে নারকেল ও কলা বাগান ধ্বংস হয়েছে। এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়বে। সংস্থাটি জানায়, নারকেলের গাছগুলো ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় ঝড়ে কোন কোন এলাকার বাসিন্দারা তাদের প্রধান আয়ের উৎসই শুধু হারায়নি, বরং শুকর ও হাঁস-মুরগির মতো গবাদিপশু ধ্বংস হওয়ায় তাদের খাদ্য নিরাপত্তাও হুমকির মুখে পড়েছে।
সংস্থাটি জানায়, প্রায় ৬৫ হাজার মানুষের জরুরি ভিত্তিতে অস্থায়ী আশ্রয় প্রয়োজন। সহায়তা সংস্থাগুলোর কর্মীরা খাবার, পানি ও স্বাস্থ্য পরিচর্যা দিতে ভানুয়াতুতে পৌঁছেছেন। কিন্তু ঝড়ের কারণে ভূ-গর্ভস্থ পানির উৎসসমূহ ধ্বংস হওয়ায় খাবার পানি পাওয়াটা উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। দ্বীপটির স্কুলগুলোর ক্লাস ২ সপ্তাহ পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। ৩০ মার্চ পুনরায় স্কুলগুলো খোলা হবে।
ওসিএইচএ জানায়, প্রাকৃতিক দুর্যোগটিতে আনুমানিক ৫০০ স্কুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ৭০ হাজার শিশুর শিক্ষা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত দ্বীপগুলোতে জ্বালানির মজুদ কমে যাচ্ছে এবং বিদ্যুৎ সংাযোগ নেই বললেই চলে। আর দ্বীপগুলোতে জেনারেটর প্রয়োজন বলেও জানানো হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ