• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন |

স্মৃতিসৌধে খালেদা জিয়ার না আসা খুবই দুর্ভাগ্যজনক

tofayel-2ঢাকা: বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘মহান স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে খালেদা জিয়ার না আসা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। তিনি তার কার্যালয়ে বসে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করেছেন। মানুষ পুড়িয়ে মারছেন। শিশু হত্যা করছেন। কিন্তু স্মৃতিসৌধে আসলেন না। এর চেয়ে দুঃখজনক আর কিছু হতে পারে না।’

তিনি বলেন, ‘তিনি (খালেদা) বিশ্ব ইজতেমা চলাকালীন হরতাল অবরোধ দেয়, ভাষা দিবসে হরতাল অবরোধ চলে, স্বাধীনতা দিবসেও হরতাল অবরোধ অব্যাহত রাখলেন। সুতরাং তার বিচার জনগণ করবে।’

বৃহস্পতিবার সকালে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসে তিনি এ সব কথা বলেন।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘একদিকে সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণ অন্যদিকে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড চালানো যাবে না।বর্তমানে বিএনপি জঙ্গি-নাশকতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজছে, সিটি করপোরেশন নির্বাচন তাদের সেই পথ দেখাবে। আমরা আশা করছি একটি অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি এই নির্বাচনে অংশ নিবে। বিএনপি যদি নির্বাচনে অংশ না নেয় তাহলে ৫ জানুয়ারির মত খেসারত দিতে হবে। তবে একটি জিনিস তাদের মনে রাখতে হবে, তা হল একদিকে নির্বাচন অন্যদিকে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড-এক সঙ্গে দুটি চালানো যাবে না। তাহলে তাদের কঠোর হাতে প্রতিরোধ করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘দুটি কারণে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ স্বাধীন করেছেন। একটি হচ্ছে রাজনৈতিক মুক্তি, অপরটি অর্থনৈতিক মুক্তি। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু নেই। তার যোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক মুক্তি এনে দেওয়ার চেষ্টা করছেন। বাংলাদেশ ২০২১ সালের মধ্যে একটি মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। কিন্তু যে মুহূর্তে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক সেই মুহূর্তে বিএনপি জঙ্গি নাশকতামূলক কর্মসূচি দিয়ে দেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যহত করার চেষ্টা করছে। তবে অতীতে খালেদা জিয়া যেভাবে পরাজিত হয়েছে, ঠিক একইভাবে এবারো তিনি পরাজিত হবেন।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ