• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন |

‘টাকার জন্য জোড়া খুন করে সাঈদ’

syadi_thereport24সিসি ডেস্ক: মাত্র ১০ হাজার টাকার জন্য সাবেক পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীকে হত্যার পর আপন বোনকে গলা কেটে খুন করে সাঈদ হাওলাদার (১৮)।

যাত্রাবাড়ী পুলিশ বুধবার রাতে শাহজাহানপুর থানা এলাকার একটি গ্যারেজ থেকে সাঈদকে গ্রেফতার করে।

রাজধানীর ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে বৃহস্পতিবার সকালে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

মঙ্গলবার উত্তর যাত্রাবাড়ীর কলাপট্টি এলাকায় খুন হন সাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল কুদ্দুসের স্ত্রী রওশন আরা বেগম (৬৫) ও গৃহকর্মী কল্পনা আক্তার (১২)। খুন হওয়া কল্পনা আক্তার গ্রেফতার সাঈদের আপন বোন বলে জানান মনিরুল ইসলাম।

মনিরুল ইসলাম জানান, বাবার প্রসাদ নামক ওই বাড়ির মালিক রওশন আরা বেগমের বাড়িতে কাজ করতেন সাঈদ হাওলাদারের মা লাকি আক্তার। সেই সুবাদে ওই বাড়িতে যেতেন সাঈদ। মঙ্গলবারও তিনি তার বন্ধু রিয়াজকে সঙ্গে ওই বাড়িতে যান। এবং রওশন আরার কাছে ১০ হাজার টাকা চান। কিন্তু তিনি টাকা দিতে অস্বীকার করলে বন্ধু রিয়াজের সহায়তায় তাকে (রওশন আরা) গলায় ছুরি চালিয়ে হত্যা করেন। এর সময় সাঈদের আপন বোন কল্পনা আকার ঘটনাটি দেখে চিৎকার করলে রিয়াজের পরামর্শে তাকেও হত্যা করেন সাঈদ।

এ সময় বাড়ি থেকে মোবাইল সেট, ল্যাপটপ নিয়ে তা গুলিস্তান স্টেডিয়াম মার্কেটে বিক্রি করেন। পুলিশ ১৪ হাজার ৪ শ’ টাকা উদ্ধার করেছে বলে জানান পুলিশের এই মুখপাত্র।

উল্লেখ্য, খুন হওয়া রওশন আরা উত্তর যাত্রাবাড়ী এলাকার ৫৬ নম্বর বাসার দোতলায় থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি নবাবগঞ্জের মাঝির গ্রামে। তার তিন ছেলে ও দুই মেয়ে বিদেশে থাকেন। ছেলে কাজল থাকেন কানাডা। বাকিরা থাকেন আমেরিকায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ