• সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৯:০২ অপরাহ্ন |

জলঢাকায় অগ্নিকান্ডে সাতটি ঘর পুড়ে ছাই, আহত দুই

Agunসিসি নিউজ: নীলফমারীর জলঢাকায় অগ্নিকান্ডে দু’টি পরিবারের সাতটি ঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। এসময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে দু’টি গরু ও দু’টি ছাগল মারা গেছে। আগুন নেভাতে গিয়ে বাবা-ছেলে আহত হয়ে হাসপতালে ভর্তি হয়েছেন। শুক্রবার ভোরে উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের চিড়াভিজা গোলনা সর্দারপাড়া গ্রামে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত সাত লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্তদের।
প্রত্যক্ষদর্শী ওই ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মিজানুর রহমান জানান, শুক্রবার ভোররাত সাড়ে পাঁচটার দিকে গ্রামের শমসের আলীর বাড়ির গোয়াল ঘরের কয়েলের আগুন থেকে আগুনের সুত্রপাত ঘটে দ্রুত তা আশেপাশে ছড়িয়ে পড়ে।
এতে শমসের চারটি ও তার ছেলে মেহেরুলের তিনটিসহ মোট সাতটি ঘর ও ঘরে থাকা নগদ টাকা, ধান, চাল, আলু, তামাকসহ আসবাবপত্র ভষ্মিভুত হয়। এছাড়াও অগ্নিদ্বগ্ধ হয়ে দ’ুটি গরু ও দু’টি ছাগল মারা যায়। আগুন নেভাতে গিয়ে সমসের আলী (৫০) ও তার ছেলে মেহেরুন আলী (২৬) আহত হয়। তাদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পার্শ্ববতি ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেসে ভর্তি করান।
জলঢাকা উপজেলা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন না থাকায় খবর পেয়ে পাশ্ববর্তি ডোমার উপজেলা ফায়ার স্টেশনের একটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে অন্তত সাত লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন এই ইউপি সদস্য।
ডোমার ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন অফিসার ভুপেন্দ্র নাথ বর্মন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, শমসের আলীর বাড়ির গোয়াল ঘরের কয়েলের আগুন থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত ঘটে। এতে দুই পরিবারের সাতটি ঘর ও ঘরে থাকা আসবাপত্র, ধান,চাল, আলু, তামাক, নগদ অর্থ সহ সর্বস্ব ভূষ্মিভুত হয়। এছাড়াও দু’টি গরু ও দু’টি ছাগল অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যায়।
আগুন নেভাতে গিয়ে সমশের আলী ও তার ছেলে মেহেরুল ইসলাম আহত হয়। তাদের ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অগ্নিকান্ডে অন্তত ছয় লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ