• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন |
/ Uncategorized

আব্বাস জঙ্গিনেতা আর মাহী পরামর্শদাতা

Hasanঢাকা: আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ঢাকা দক্ষিণের প্রার্থী মির্জা আব্বাসকে জঙ্গিনেতা এবং উত্তরের মাহী বি. চৌধুরীকে জঙ্গির পরামর্শদাতা বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত হরতাল-অবরোধের প্রতিবাদে এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি উত্তরের জন্য জঙ্গির অর্থায়নকারী আবদুল আউয়াল মিন্টুকে সমর্থন দিতে চেয়েছিল। কিন্তু তার মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার পর এখন শুনছি জঙ্গির পরামর্শদাতা মাহী বি চৌধুরীকে সমর্থন দেবে। আর বিএনপির দক্ষিণে সমর্থন দেওয়া মির্জা আব্বাস একজন জঙ্গিনেতা।’

তিনি বলেন, ‘সিটি নির্বাচনে জঙ্গি, হিংস্র নেত্রী খালেদা তার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেবেন বলে শুনেছি। তিনি পেট্রোল বোমা বাহিনী নিয়ে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ঘুরবেন আর আমাদের মন্ত্রীরা প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না। সেটা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড হতে পারে না। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতসহ পৃথিবীর অন্যান্য উন্নত দেশে নির্বাচনে সরকারি প্রটোকল বাদ দিয়ে মন্ত্রীরা প্রচারণায় অংশ নিতে পারে। কিন্তু আমাদের দেশে সেটা সম্ভব হয় না। তাই মন্ত্রীরা যেন নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে পারে এমন বিধান সংযোজন করে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করার জন্য নির্বাচন কমিশনারের প্রতি আমি অনুরোধ জানাচ্ছি।’

খালেদা জিয়া নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিলে তাকে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রতিহত করার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান। খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে বিএনপির সন্ত্রাসীদের কীভাবে আগাম জামিনের ব্যবস্থা করা যায় খন্দকার মাহবুব হোসেন সে চেষ্টা করছেন। আদালতকে প্রভাবিত করার চেষ্টা অত্যন্ত দুঃখজনক।’

তিনি বলেন, ‘নজরুল ইসলাম নির্বাচনের আগেই নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে চাইছেন। নির্বাচনের আগে এটাকে প্রশ্নবিদ্ধ করা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আমরাও কোনোভাবে নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে চাই না।’

কামরুজ্জামানের বিভিউ পিটিশনের রায় হয়েছে। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ পেলেই তার দণ্ডাদেশ কার্যকর করা হবে বলে জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, ‘হরতাল একটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের হাতিয়ার। যা জামায়াতে ইসলামী এখন আদালতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছে।’

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, রূপালী ব্যাংকের পরিচালক জাকির হোসেন, আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা হাসিবুর রহমান মানিক, আওয়ামী লীগের উপকমিটির সহ-সম্পাদক এম এ করিম।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ