• সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
সৈয়দপুরে পূর্ব শক্রতার জেরে যুবককে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো হতে পারে : রেলমন্ত্রী জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে জাপার দুইদিনের কর্মসূচি প্রেমিকাকে রেললাইনের ধারে দাঁড় করিয়ে ট্রেনের নিচে প্রেমিকের ঝাপ ফুলবাড়ীতে কোরিয়ান মেডিকেল টিমের ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প উদ্বোধন বিয়ের দাবিতে চাচার বাড়িতে ভাতিজির অনশন সৈয়দপুর খাদ্য গুদাম শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার খানসামায় ট্রাক ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১ পাঁচ বছরেও শেষ হয়নি ১৭৫ মিটার সেতুর কাজ: ভোগান্তি লক্ষাধিক মানুষের বৈঠকের মধ্য দিয়ে পাকেরহাটে যাত্রা শুরু করলো শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতি পরিষদ

সৈয়দপুরের স্থানীয় শহীদ দিবস পালিত

unnamed-6সিসি নিউজ: নানা আয়োজনে পালন করা হয়েছে সৈয়দপুরের স্থানীয় শহীদ দিবস । ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ১২ এপ্রিল পাক হানাদার বাহিনী সৈয়দপুরের অর্ধশতাধিত মানুষকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। তৎকালীন প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য ডা. জিকরুল হক, ডা. বদিউজ্জামান, ডা. সামসুল হক, তুলশিরাম আগরওয়ালা, বাবু রামেশ্বরলাল আগরওয়ালা, যমুনা প্রসাদ কেডিয়া, রেলওয়ে কর্মকর্তা ডা.ইয়াকুব আলী, আয়েজ উদ্দিন, ডা.মোবারক আলীসহ নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের সৈয়দপুর সেনানিবাসে হাত পা বেঁধে রাখা হয়েছিল। এরপর ১২ এপ্রিল তাদের চোখমুখ বেঁধে রংপুর সেনানিবাসের নিসবেতগঞ্জে নিয়ে গিয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। পাশাপাশি এই দিনে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার পদস্থ কর্মচারীদের বাড়ি থেকে ডেকে এনে পাকসেনা ও তাদের অবাঙ্গালী দোসররা হত্যা করে। নৃশংস হত্যাযজ্ঞের দিনটি সেসময় থেকে প্রতিবছর ১২ এপ্রিল স্থানীয় শহীদ দিবস হিসাবে পালিত হয়ে আসছে।

দিবসটি পালনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও প্রজম্ম’৭১ যৌথভাবে নানা কর্মসূচি পালন করে। রবিবার (১২ এপ্রিল) সকালে স্মৃতি অম্লান চত্বরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন, সকল প্রতিষ্ঠানে কালো পতাকা উত্তোলন, বুকে কালো ব্যাজ ধারণ, শোকর‌্যালি, প্রতিকী অনশন, স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। স্মৃতি অম্লান চত্বরে আয়োজিত প্রতীক অনশন কর্মসূচি শেষে সেখানে স্মৃতিচারণমূলক সভায় বক্তব্য রাখেন শহীদ পরিবারের সন্তন আব্দুর রশিদ, মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান, মুজিবুল হক, রাবেয়া আলিম, সৈয়দপুরের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার একরামুল হক, আলহাজ্ব বখতিয়ার কবির প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন শহীদ পরিবারের সন্তান মঞ্জুর হোসেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আরেক শহীদ পরিবারের সন্তান মহসিনুল হক মহসিন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ