• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন |

উজ্জীবিত টাইগারের সামনে পাকিস্তান

download (1)খেলাধুলা নিউজ: মাঠের ক্রিকেটের বাইরে প্রতিটি আন্তর্জাতিক সিরিজকে ঘিরেই একটা আবহ থাকে। বাংলাদেশ-পাকিস্তান ওয়ানডে সিরিজের আগেও তেমন কিছু ইতোমধ্যে তৈরি হয়ে গেছে। যেখানে মূল লড়াইয়ের আগে অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী পাকিস্তান দলকে চোখ রাঙাচ্ছে উজ্জীবিত বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের প্রেরণাদায়ী, সাহসী পারফরম্যান্সই উসকে দিচ্ছে টাইগারদের। পাকিস্তান দলের তারুণ্যে ঠাসা রুপও বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাসের রসদ বটে।
সিরিজে নিজেদের ফেবারিট ঘোষণা করেছেন বাংলাদেশের কয়েকজন ক্রিকেটার। পাকিস্তান কোচ ওয়াকার ইউনুসও ভদ্রতার খাতিরে সেটিকে সম্মান জানিয়েছেন। প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানের হারটা টাইগারদের আত্মবিশ্বাসের পারদে নতুন সংযোজন হয়েছে। সাকিব আল হাসান সোজা-সাপ্টাই বলে দিয়েছেন, পাকিস্তানকে হারানোর ক্ষমতা রয়েছে বাংলাদেশের। সিরিজ জয়ও তার চোখে খেলা করছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের ১৬ বছরের গিট্টুটা খোলার আশাবাদ ছিল সাকিবের কণ্ঠে। গত ১৬ বছরে হয়নি বলে, এবার হবে না এমনটা ভাবতে চান না তিনি।
ড্যান কেক সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে শুক্রবার পাকিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর আড়াইটায়। জিটিভি ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

অতীত পরিসংখ্যানে অবশ্য আশার আলো নেই বাংলাদেশের জন্য। ওয়ানডেতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ৩২ ম্যাচ খেলে বাংলাদেশের জয় একটি। আর দেশের মাটিতে ১৪ ম্যাচের সবকটিতেই পাকিস্তানের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ। এসব ভুলে প্রথম ম্যাচের অধিনায়ক সাকিবের চোখে, বাংলাদেশের সামনে এটাই সেরা সুযোগ। অলক্ষ্যে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৈরি হওয়া দীর্ঘ বন্ধ্যাত্ব ঘুচানোই মূল টার্গেট। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেছেন, “এখন পর্যন্ত এটা আমাদের জন্য সেরা সুযোগ, পাকিস্তানকে হারানোর। এই কারনেই আমাদের সবার ভেতর এই আত্মবিশ্বাসটা আছে এই সিরিজে ভালো কিছু করা সম্ভব।”
সাকিবের কথা একেবারে অমূলক নয়। সেরা সুযোগ বলতেই হবে, যেখানে পাকিস্তান দলে নেই মিসবাহ, আফ্রিদি, ইউনুসদের মতো অভিজ্ঞরা। যারা অতীতে দেয়াল হয়ে দাঁড়াতেন বাংলাদেশের সামনে। বর্তমান পাকিস্তান দলে একশোর বেশি ওয়ানডে খেলেছেন শুধু হাফিজ ও আজমল। বোলিং অ্যাকশন বৈধ নয় বলে হাফিজ শুধু ব্যাটসম্যান। আর বোলিং অ্যাকশন শুধরে আজমল আছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তনের অপেক্ষায়। অথচ বাংলাদেশ দলে কিনা একশোর বেশি ওয়ানডে খেলা ক্রিকেটার আছেন পাঁচ জন।
ম্যাচে বাংলাদেশের বড় ভাবনা হবে পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণ। ওয়াহাব রিয়াজ, জুনায়েদ খান, রাহাত আলী, এহসান আদিলরা বিশ্বকাপেও নিজেদের ভয়ঙ্কর বোলিং লাইন হিসেবে প্রমাণ করেছেন। আবার বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির, সৌম্যদের পারফরম্যান্স মনোবল যোগাচ্ছে বাংলাদেশকে। মিসবাহ-আফ্রিদি উত্তর যুগে আজহার আলী নেতৃত্বে তারুণ্যের পাকিস্তান কতটা নিজেদের মেলে ধরতে পারে সাকিব-রুবেলদের বিপক্ষে সেটাই দেখার বিষয়।
বাংলাদেশ দলে শুক্রবার ওয়ানডে অভিষেক হওয়ার কথা রনি তালুকদারের। তবে টিম ম্যানেজমেন্ট সূত্রে জানা গেছে, অভিষেক হচ্ছে না রনির। ফলে একাদশে ফিরবেন আবুল হাসান রাজু। মাশরাফি না থাকায় রুবেল, তাসকিনই নতুন বলের দায়িত্ব পাচ্ছেন। আটজন ব্যাটসম্যান নিয়েই খেলার সম্ভাবনা বেশি বাংলাদেশের। আর পাকিস্তান দলে অভিষেক হতে পারে সাদ নাসিমের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ