• শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২৫ অপরাহ্ন |

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির উত্তোলন ২০ দিন ধরে বন্ধ

boropuরুকুনুজ্জামান বাবুল, পার্বতীপুর (দিনাজপুর): গত ২০ দিন ধরে দিনাজপুরের পার্বতীপুরস্থ বড়পুকুরিয়া খনির কয়লা উত্তোলন বন্ধ রয়েছে। গত ৩০ মার্চ থেকে উৎপাদনশীল ১২১২ নম্বর কোল ফেজের কয়লার মজুদ শেষ হয়ে গেলে কয়লা উত্তোলন পুরোপুরি ভাবে বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে নতুন ১২০৮ নম্বর ফেজ থেকে কয়লার উৎপাদন শুরুর প্রস্তুতি চলছে। খনি সুত্র জানায়, বন্ধ হয়ে যাওয়া ১২১২ নম্বর ফেজে ব্যবহৃত উৎপাদন যন্ত্রপাতি সরিয়ে ১২০৮ নম্বর ফেজে স্থাপন করে পুনরায় কয়লা উত্তোলন শুরু করতে দেড় মাস সময় লাগতে পারে। ১২১২ নম্বর কোল ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন শুরু হয় গত বছরের ১৫ নভেম্বর মাসে। এ ফেজ থেকে উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৫ লাখ টন। সেখানে উৎপাদন করা হয়েছে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টন কয়লা।
এব্যাপারে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আমিনুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেন জানান, কয়লা উৎপাদন বন্ধ একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। একটি ফেজ থেকে উত্তোলন শেষে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সরিয়ে নতুন ফেজে স্থাপনের জন্য ৪০/৪৫ দিন সময় লাগে। এছাড়া এ সময়ে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ক্রটি-বিচ্যুতি ধরা পড়লে মেরামতের জন্য বাড়তি সময়ের প্রয়োজন হয়। এজন্য কয়লার উৎপাদন সাময়িক বন্ধ থাকে।
বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির মহাব্যবস্থাপক (মাইনিং) জিএম প্রকৌশলী হাবিব উদ্দিন আহমেদ বলেন, সব প্রস্তুতি শেষ করে আগামী মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে নতুন ১২০৮ নম্বর ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন শুরু করা সম্ভব হবে। তিনি আরো জানান বর্তমানে খনির কোল ইয়ার্ডে ৯০ হাজার মেট্রিক টন কয়লা মজুদ রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ