• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন |

কুমারিত্ব রক্ষায় দৌড় বাতিল

raceসিসি ডেস্ক: প্রধান শিক্ষকের সিদ্ধান্ত বলে কথা। যা কোনোভাবেই উপেক্ষা করার উপায় নেই। এর জন্য ছাত্রীরা ক্রস-কানট্রি রেসে অংশ নিতে পারছে না। দোহাই দেয়া হচ্ছে কুমারিত্ব হারানোর। ঘটনাটি অস্ট্রেলিয়ায় ভিক্টোরিয়া প্রদেশের একটি ইসলামি হাই স্কুলে। পর পর দু’বছর, কুমারিত্ব নষ্ট হওয়ার অজুহাত দেখিয়ে, ছাত্রীদের ক্রস-কানট্রি রেসে অংশ নিতে দেয়া হয়নি। এই খবর ভিক্টোরিয়ার প্রাদেশিক সরকারের উপ-প্রধানমন্ত্রী জেমস মার্লিনো কানে চলে গেছে। এরপর তিনি এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম মেলবোর্নের ট্রুগানিনা শহরতলির আল-তাকওয়া ইসলামি হাই স্কুলে। প্রধান শিক্ষক ওমর হাল্লাক মনে করেন, দূরপাল্লার দৌড়ে মেয়েরা অংশ নিলে তাদের কুমারিত্ব নষ্ট তো হবেই এবং ফুটবলের মতো খেলায় আহত হলে তাদের সন্তানধারণের ক্ষমতাও হারাবে। তাঁর পদক্ষেপের পিছনে বৈজ্ঞানিক ভিত্তি আছে বলেও দাবি করেন তিনি। এর পরেই স্কুলের ছাত্রীরা একটি চিঠিতে তাঁর সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য অনুরোধ জানায়। তারা বলে প্রধানশিক্ষক হিসেবে তাঁর ছাত্র ও ছাত্রীদের সমানভাবে দেখা উচিত। ক্রস কানট্রি রেস বাতিল হওয়ায় তারা তাদের হতাশাও ব্যক্ত করে। তারা বলে, স্কুলের শিক্ষকদের উত্‍সাহে তারা এই প্রতিযোগিতার জন্য যথেষ্ট খেটেছিল। অনেক ছাত্রীর অভিভাবকরাও এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন। বৃহস্পতিবার সব অভিযোগ খণ্ডন করে হাল্লাক এক বিজ্ঞপ্তি জারি করেন। সেখানে তিনি বলেন তাঁর স্কুলে ছাত্রীরা সব রকম ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ড ইভেন্টে অংশ নেয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে অবশ্য অভিভাবকের অনুমতি নেয়া হয়। এখানেই শেষ নয়। এই মাসের গোড়ায় হাল্লাক তাঁর স্কুলের ছাত্রদের বলেন, জঙ্গি সংগঠন আইএস আসলে আমেরিকার নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা দুনিয়ার তৈরি এক ষড়যন্ত্র। তিনি আরো বলেন, ইজরায়েলের মতো দেশের কোনো অস্তিত্বই নেই। এর পরেই তাঁর কৈফিয়ত্‍ তলব করেন শিক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার পাইন। উল্লেখ্য, আল-তাকওয়া ইসলামী হাই স্কুল হল ভিক্টোরিয়া প্রদেশের বৃহত্তম ইসলামি স্কুল। ২০১৩ সালে এটি কমনওয়েলথ অর্থভাণ্ডার থেকে ১.১ কোটি ডলার অনুদান পায়। একই বছরে তারা প্রাদেশিক সরকার থেকে ৪৭ লক্ষ ডলার সাহায্য পায়। সূত্র: এইসময়


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ