• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন |

ভূমিকম্পে এবার সোজা হলো সাদিয়ার বাঁকা পা!

125823_1সিসি নিউজ: ভূমিকম্পে দিনাজপুরের বীরগঞ্জে অলৌকিকভাবে মোছা. সাদিয়া (৯) নামে এক প্রতিবন্ধী শিশুর বাঁকা পা সোজা হয়ে গেছে। জন্ম থেকেই শিশুটি প্রতিবন্ধী ছিল। এখন সে স্বাভাবিকভাবে হাঁটতে পারছে। রোববার দুপরে ভূমিকম্প শুরু হলে তার মা-বাবা বাঁকা পা মাটিতে চেপে ধরে রাখলে অলৌকিকভাবে শিশুটির পা ভালো হয়ে যায়। মোছা. সাদিয়া বীরগঞ্জ পৗরশহরের থানা পাড়ার মো. আলমের মেয়ে এবং ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতনের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী।

শিশুটির বাবা মো. আলম জানান, জন্ম থেকেই সাদিয়ার ডান পা এবং হাত ছিল বাঁকা। এ কারণে সে পা পেতে হাঁটতে পারতো না। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটা চলা করতো। চিকিৎসার জন্য পরিবারের লোকজন ডাক্তার, কবিরাজ ও হেকিমের শরণাপন্ন হলেও ফল পায়নি।

শিশুটির মা মোছা. রোকসানা জানান, নীলফামারীর সৈয়দপুরে এক আত্মীয়ের বাসায় যাওয়ার সময় সাদিয়ার এমন অবস্থা দেখে বাসে পাশের সিটে বসা এক বৃদ্ধা ভূমিকম্পের সময় মাটিতে পা চেপে রাখার পরামর্শ দেন। বৃদ্ধার পরামর্শে রোববার তিনি শিশুটির পা মাটিতে চেপে ধরেন এবং ভূমিকম্প শেষে অলৌকিকভাবে তার পা ভালো হয়ে যায়।

এ ব্যাপারে শিশুটির প্রতিবেশী দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বীরগঞ্জ এরিয়া পরিচালক মো. আইয়ুবুল ইসলাম মিন্টু  জানান, জন্ম থেকেই তিনি শিশুটির একটি হাত এবং পা বাঁকা দেখে আসছেন। কিন্তু আজ মেয়েটিকে স্বাভাবিকভাবে হাটতে দেখে তিনি অবাক হয়ে গেছেন। এ বিষয়ে বিস্তারিত সাদিয়ার পরিবারের কাছে জানতে পেরে বিষয়টি তার কাছে বিস্ময়কর মনে হয়েছে।

ইব্রাহিম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতনের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আসাদুল ইসলাম দুলাল জানান, মেয়েটি সোমবার সকালেও খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে বিদ্যালয়ে এসেছিল। তার স্বাভাবিক হাঁটাচলা করার বিষয়টি জানতে পেরে তিনি স্বচক্ষে দেখতে যান। বিষয়টি তার বিস্ময়কর মনে হয়েছে।

বীরগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মীর কাশেম লালু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তিনি বিষয়টি বিশ্বাস করতে না পেরে নিজেই দেখতে সাদিয়াকে দেখতে তাদের বাড়িতে যান। তবে বিষয়টি অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। তার কাছে মনে হয়েছে ভূমিকম্প মেয়েটির জন্য আশীর্বাদ হয়ে এসেছিল।

এর আগে, রোবারের ভূমিকম্পে অলৌকিকভাবে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মধুপুর কালিতলা গ্রামের দিনমজুর আ. রাজ্জাকের ছেলে সবুজের (৫) বাঁকা পা সোজা হওয়ার ঘটনা ঘটে। জন্ম থেকে সবুজও প্রতিবন্ধী ছিল। এখন সে গোড়ালীর পরিবর্তে পায়ের পাতা দিয়ে হাটতে পারছে।

উৎসঃ   বাংলামেইল


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ