• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন |

সালাহ উদ্দিনকে উত্তরা থেকে অপহরণ করা হয়েছিল

Salauddinসিসি ডেস্ক : ভারতের মেঘালয়ে গ্রেপ্তার বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদ দাবি করেছেন, তাকে দুই মাস আগে ঢাকার উত্তরা থেকে অপহরণ করা হয়েছিল।

অপহরণের পর থেকে আর কিছু মনে করছে পারছেন না বলেও দাবি করেছেন বিএনপির এই যুগ্মমহাসচিব, যার নিখোঁজ হওয়া নিয়ে গত দুই মাস ধরে আলোচনা চলছিল বাংলাদেশজুড়ে।

মেঘালয় পুলিশ সোমবার গ্রেপ্তারের পর সালাহ উদ্দিনকে স্থানীয় একটি মানসিক হাসপাতালে পাঠায়। চিকিৎসকরা মানসিক কোনো সমস্যা না থাকার কথা জানালে তাকে অন্য একটি সরকারি হাসপাতালে নেওয়া হয়।

গ্রেপ্তারের পর মেঘালয় পুলিশ তার পরিচয় নিশ্চিত করতে না পারলেও হাসপাতাল স্থানান্তরের সময় সালাহ উদ্দিন নিজেই সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “হ্যাঁ, আমিই বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন। আমাকে উত্তরা থেকে অচেনা লোকজন তুলে নিয়েছিল। আমি জানি না আমি কিভাবে এখানে এলাম।”
‘অপহরণের’ পর আর কিছুই মনে করতে পারছেন না বলে জানান ৫৪ বছর বয়সী এই রাজনীতিক।

মঙ্গলবার তিনি ঢাকায় স্ত্রী হাসিনা আহমেদকে টেলিফোন করলে তা বাংলাদেশেও জানাজানি হয়। হাসিনা আহমেদ ইতোমধ্যে শিলং যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ