• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন |

ধামরাইয়ে দুই বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

Dakatiসাভার : ঢাকার ধামরাইয়ে এক শিক্ষকের বাড়িসহ দুটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে দুটি বাড়ির লোকজন ও এলাকাবাসীসহ আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন।

মঙ্গলবার ভোরে ধামরাইয়ের যাদবপুর ইউনিয়নের চুন্না গ্রাম ও কাছৈর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, ভোর ৪টার দিকে ধামরাইয়ের চুন্না গ্রামের কালিয়াকৈর এলাকার কান্দাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনিল চন্দ্র সরকারের দোতলা বাড়ির কলাপসিবল গেটের তালা ভেঙে ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে ১০-১২ সদস্যের একটি সশস্ত্র ডাকাত দল। এ সময় ডাকাত দল ঘরে প্রবেশ করে শিক্ষক অনিল চন্দ্র সরকার ও তার স্ত্রী মিতা সরকার ও ভাই জীবন চন্দ্র সরকারকে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে। পরে আলমারি ভেঙে নগদ ৫ লাখ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে ডাকাতরা হিম্মত মোল্লা, গরী মোল্লা ও শিশিরসহ সাতজনকে কুপিয়ে আহত করে এবং কয়েক রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা আহত ব্যক্তিদের দ্রুত উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করে ।

মাথায় বেশি আঘাত পাওয়ায় ও রক্তক্ষরণের কারণে শিক্ষক অনিল চন্দ্র সরকার ও তার ভাই জীবন চন্দ্র সরকারের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ডাকাতি হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার।

অন্যদিকে একই সময়ে ধামরাইয়ের কাছৈর গ্রামের স্থানীয় ব্যবসায়ী শুকুরের বাড়িতে একদল ডাকাত হানা দেয়। এ সময় ডাকাতরা বাড়িতে থাকা ১ লাখ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে পালিয়ে যায়।

দুটি ডাকাতির ঘটনার খবর পেয়ে ধামরাই থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় ধামরাই থানায় দুটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ