• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন |

দিনাজপুরে ঘুষ নেয়ার অভিযোগে পুলিশ সদস্য বরখাস্ত

Gusদিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরে বিচারকের নাম ভাঙ্গিয়ে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে এক পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত ও অফিস পিয়নকে চাকুরী হতে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। বুধবার (২০ মে) দিনাজপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে এ ঘটনা ঘটে।
দিনাজপুর নারী শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিশেষ পিপি দেলোয়ার হোসেন জানান, দিনাজপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক মোঃ আখতার-উল-আলমের নাম করে তাঁর দেহরক্ষী কনস্টেবল আব্দুর রাজ্জাক ও অফিসের পিয়ন আবু সাঈদ বিচারাধীন ১৭০/১৫ মামলার ১নং আসামী আব্দুস সাত্তার বাবুর কাছে জামিন দেয়ার নাম করে বিচারককে টাকা দিতে হবে বলে গত ১৯ মে সাড়ে ১০ হাজার টাকা গ্রহণ করে। বিষয়টি বাদী পক্ষের নিয়োজিত আইনজীবী সলিমুল্লাহ’র অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিচারক বিষয়টি অবগত হন।
বিচারক গত বুধবার সকালে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য আব্দুর রাজ্জাক ও অফিস পিয়ন আবুু সাঈদকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাদের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ প্রমানিত হয়। ২ জনই বিচারকের নাম করে ঘুষ নেয়ার কথা স্বীকার করেন।
পরে বিচারক তাঁর দেহরক্ষী পুলিশ কনস্টেবল আব্দুর রাজ্জাককে পুলিশ সুপার রুহুল আমিনের হেফাজতে হস্তান্তর করেন। পুলিশ কনস্টেবল আব্দুর রাজ্জাককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দেন। আদালতের পিয়ন আবু সাঈদকে চাকুরী থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।
নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক মোঃ আখতার-উল-আলম বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. আজিজুল ইসলাম জুগলু, সাধারণ সম্পাদক একরামুল আমিন, সিনিয়র আইনজীবী মোহাম্মদ ইছাহক, আব্দুল লতিফ, মোঃ ইউসুফ আলী ও সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের বিশেষ পিপি দেলোয়ার হোসেন, উল্লেখিত মামলার আসামী পক্ষের আইনজীবী আনিসুর রহমান চৌধুরী ও বাদী পক্ষের আইনজীবী সলিমুল্লাহ প্রমুখের উপস্থিতিতে ঘুষ গ্রহণের ঘটনাটি অবহিত করেন। উপস্থিত আইনজীবীরা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ