• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:০৭ পূর্বাহ্ন |

মেক্সিকোতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৪৪

le6v6b5mআন্তর্জাতিক ডেস্ক: মেক্সিকোর পশ্চিমাঞ্চলে শুক্রবার সরকারি বাহিনী এবং সন্দেহভাজন মাদক পাচারকারী চক্রের মধ্যকার বন্দুকযুদ্ধে কমপক্ষে ৪৪ জন নিহত হয়েছে। প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েটোর আমলে দেশটিতে এটিই সবচেয়ে বড় সহিংসতার ঘটনা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সরকারি কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ওই লড়াইয়ে দুই ফেডারেল পুলিশ নিহত এবং আরো একজন গুরুতর আহত হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, শুক্রবার সকালে মেক্সিকোর মিচোয়াকান প্রদেশের গুয়াদালাজারা এবং তানহুয়াতো শহরে সন্দেহভাজন মাদক পাচার চক্র জালিসকো নিউ জেনারেশন(জেএনজি) সদস্যদের সঙ্গে ওই বন্দুকযু্দ্ধের ঘটনাটি ঘটে।

অন্য এক সরকারি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্স আরো জানিয়েছে, তানহুয়াতো শহরের এক রেঞ্চে সশস্ত্র লোকজন জড়ো হয়েছে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে ছুটে যায়। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের দেখেই গুলি করতে শুরু করে চক্রের সদস্যরা। এতে দুপক্ষের মধ্যে ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধ শুরু হয়। লড়াইয়ে সবমিলিয়ে ৪৪ জন নিহত হয়। ঘটনাস্থল থেকে রকেট লাঞ্চার এবং শক্তিশালী বন্দুসসহ বেশ কিছু অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

তানহুয়াতো শহরে এক সপ্তাহ আগে এক মেয়র প্রার্থী নিহত হওয়ার পর সেখানে ফেডারেল বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

মেক্সিকোর অর্থনীতিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখল করে আছে জালিস্কো। সেখানকার জেএনজি মাদকচক্রটি প্রেসিডেন্ট পেনা নিয়েতোর মাথাব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ওই চক্রের হাতে গত মার্চ মাস থেকে এ পর্যন্ত কমপক্ষে ২০ পুলিশ নিহত হয়েছেন। এর আগে গত পহেলা মে জেলিস্কোর দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকায় একটি সামরিক হেলিকপ্টার ভূপতিত করেছিল ওই চক্রটি। ওই ঘটনায় ৬ সেনা নিহত হয়েছিল।

এছাড়া ওই চক্রটি গুয়াদালাজারা এলাকার আশেপাশে যানবাহন, ব্যাংক এবং পেট্রোলপাম্পে বেশ কয়েকটি  হামলা চালিয়েছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ