• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন |

সীমান্তে যুবলীগ কর্মীর গলাকাটা লাশ

Simantoকুমিল্লা: কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম এলাকায় ভারতীয় সীমান্তে রিপন মিয়া (৩৫) নামে এক বাংলাদেশি যুবকের গলাকাটা মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

রিপন মিয়া চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গোলপাশা এলাকার মৃত আব্দুল হকের ছেলে। তিনি চৌদ্দগ্রামের যুবলীগ কর্মী বলে জানা গেছে।

ভারতের সীমান্তবর্তী জেলা ত্রিপুরার রাঙ্গামুড়া থানার সালুকিয়া গ্রামের পাশ থেকে রিপন মিয়ার মরদেহটি উদ্ধার করে বিএসএফ। দুর্বৃত্তরা তাকে গলাকেটে সালুকিয়া গ্রামের পাশে নো-ম্যান্স ল্যান্ড এলাকার একটি গর্তে ফেলে রাখে।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় গর্ত থেকে গলাকাটা লাশটি উত্তোলন করা হয়। পরে রাত ৯ টায় লাশটি বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

কুমিল্লা ১০ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. মোখলেসুর রহমান জানান, ১০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আমানগন্ডা বিওপি এলাকায় সীমান্ত পিলার ২১০৫/৮-এস থেকে প্রায় ১৪০ গজ ভারতের অভ্যন্তরে সালুকিয়া নামক স্থানে একটি গর্তের মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিক রিপন মিয়ার গলাকাটা মৃতদেহ পাওয়া যায়।

১০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের আমানগন্ডা বিওপির বিওপি কমান্ডার নায়েব সুবেদার মো. সুরুজ আলী এবং ২৯ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের আজগর রহমানপুর এর কোম্পানি কমান্ডার এসি মনোজ কুমার সিংহ এবং বাংলাদেশি ও ভারতীয় স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ