• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৩৩ পূর্বাহ্ন |

চলে গেলেন নোবেল বিজয়ী গণিতবিদ ন্যাশ

John-Nash-3আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী বিখ্যাত মার্কিন গণিতবিদ জন এফ ন্যাশ জুনিয়র শনিবার এক সড়ক দুর্ঘটনায় সস্ত্রীক নিহত হয়েছেন। মৃত্যুকালে  তার বয়স হয়েছিল ৮৬। রবিবার স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ খবর নিশ্চিত করেছে বিবিসি সূত্র।

আধুনিক অর্থনীতির তত্ত্বের জন্য বিখ্যাত এই গণিতবিদের জীবনী নিয়ে প্রচুর বই লেখা হয়েছে। এছাড়া ২০০১ সালের অস্কার বিজয়ী ‘বিউটিফুল মাইন্ড’ চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছিল তারই জীবনী অবলম্বনে।

ন্যাশ এবং তার স্ত্রী অ্যালিসিয়া(৮২) যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের টার্নপাইক সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় দুর্ঘটনায় পড়েন বলে বিবিসি জানিয়েছে। নিউজার্সির এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তার ট্যাক্সিচালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অন্য গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ট্যাক্সিক্যাব থেকে ছিটকে বাইরে পড়ে যান ন্যাশ এবং স্ত্রী। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তারা।

গেম থিওরির জন্য বিখ্যাত জন ন্যাশ ১৯৯৪ সালে অর্থনীতিতে  নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন।তিনি প্রিস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে গণিত বিভাগে একজন বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করছিলেন।

গণিত নিয়ে তার অভাবনীয় সব অবদান আর সিজোফ্রেনিয়ার সঙ্গে তার অবিরাম সংগ্রামের কাহিনী নিয়ে তৈরি হয়েছিল  হলিউডের বিখ্যাত চলচ্চিত্র ‘বিউটিফুল মাইন্ড’। এ ছবিতে তার চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন বিখ্যাত অভিনেতা রাসেল ক্রো। ন্যাশের মৃত্যুতে দু:খ প্রকাশ করে তিনি এক টুইটার বার্তায় লিখেছেন,‘জন এবং অ্যালিসিয়ার মৃত্যুতে আমি স্তম্ভিত। তারা ছিলেন এক আশ্চর্য জুটি। সুন্দর মন, সুন্দর হৃদয়।’

তার মৃত্যুতে  দু:খ প্রকাশ করেছেন ছবির পরিচালক রন হাওয়ার্ডও।

প্রতিভাবান এই বিজ্ঞানী জন্মগ্রহণ করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায়। লেখাপড়া করেছেন পিটার্সবার্গে। পরে প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে। ১৯৫৭ সালে সেরা কাজ ‘গেম থিউরির’ উল্লেখযোগ্য কিছু কাজ প্রকাশিত হয়। ওই বছরই তিনি অ্যালিসিয়া লার্ডেকে বিয়ে করেন। বিয়ের পরই তিনি মানসিক পীড়া সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত হন। দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে তিনি এই রোগে ভুগেন। বিয়ের মাত্র পাঁচ বছরের মাথায় ১৯৬২ সালে এই দম্পতির বিয়ে ভেঙে যায়। তবে বিচ্ছেদ হলেও ন্যাশের পাশাপাশিই ছিলেন অ্যালিসিয়া।

আশির দশকের দিকে তার মানসিক অবস্থার উন্নতি হতে থাকে। ২০০১ সালে তারা ফের বিয়ে করেন।

একই সঙ্গে গণিত, অর্থনীতি এবং বিজ্ঞানে তার অসামান্য দক্ষতা দেখিয়েছেন জন ন্যাশ। এমনকি চলতি সপ্তাহেও গণিতের সর্বোচ্চ সম্মান ‘অ্যাবেল প্রাইজ’ জিতেছিলেন এই ক্ষণজন্মা বিজ্ঞানী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ