• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৯:১৩ অপরাহ্ন |

মমতা ব্যানার্জি ঢাকায়

Mamata_banarzee1433519105সিসি নিউজ: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন। এয়ার ইন্ডিয়ার নিয়মিত ফ্লাইটে শুক্রবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি। তাকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। মমতার সঙ্গে এসেছেন রাজ্যের মুখ্য সচিব সঞ্জয় মিত্র ও বিশেষ সচিব গৌতম সান্যাল।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ঢাকায় আসলেও মমতা ব্যানার্জি তার প্রতিনিধিদলের সদস্য নন। এমনকি মোদির সৌজন্যে আগামীকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ডিনার পার্টিতেও অংশ নেবেন না মমতা।

এদিকে আসামের মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ, মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী মুকুল সাংমা ও ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের ঢাকায় আসার কথা থাকলেও তারা আসছেন না।

সূত্র জানায়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগামীকাল শনিবার সকালে ঢাকায় আসবেন। তার একদিন আগে আজ রাতেই ঢাকায় পৌঁছেছেন মমতা। তাও আবার নিজ খরচে। মোদির প্রতিনিধিদলের কোনো সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছেন না তিনি। ঢাকা সফরে মোদির প্রতিনিধিদলের জন্য সোনারগাঁও হোটেল নির্ধারণ করা থাকলেও সেখানে ওঠেননি মমতা। তিনি উঠেছেন র‌্যাডিসন হোটেলে। ব্যক্তিগত সফরে ঢাকায় আসলেও হোটেল ও আতিথেয়তার সব ব্যবস্থা করছে বাংলাদেশ সরকার।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবার বিকেল ৩টার দিকে সোনারগাঁও হোটেলে মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এরপর মোদির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কার্যালয়ে যাবেন। সেখানে প্রায় তিন ঘণ্টার মূল আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে। অর্থাৎ, দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একান্ত বৈঠক, দুদেশের প্রতিনিধিদলের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক এবং উভয় দেশের মধ্যে প্রায় ২০টি চুক্তি, সমঝোতা স্মারক ও প্রটোকল স্বাক্ষর হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে ত্রিপুরা-ঢাকা-কলকাতা  ও ঢাকা-শিলং-গুয়াহাটি বাস সার্ভিসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মমতা।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়া ঢাকায় নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আর কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন না মমতা। মোদির সম্মানে সোনারগাঁও হোটেলে রাত ৮টায় ডিনারের আয়োজন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু এই অনুষ্ঠানে যোগ না দিয়ে র‌্যাডিসন হোটেলে থেকে সরাসরি বিমানবন্দর এবং সেখান থেকে কলকাতা ফিরবেন মমতা। শনিবার রাত সাড়ে ৯টায় এয়ার ইন্ডিয়ার ফিরতি ফ্লাইটেই চলে যাবেন তিনি। তবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে মমতার আতিথেয়তায় কোনো ঘাটতি রাখা হচ্ছে না। মমতার জন্য উপহার হিসেবে ঢাকায় জামদানি শাড়িও কিনে রাখা হয়েছে।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শনিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে ঢাকায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে মমতা ঢাকায় আসলেও তিস্তা চুক্তি নিয়ে কোনো আলোচনা করবেন না মমতা। এমনকি দ্বিপক্ষীয় বৈঠকেও বিষয়টি উত্থাপন না করতে অনুরোধ জানিয়েছেন মমতা। তবে শেখ হাসিনার সঙ্গে একান্ত বৈঠকেই শুধুমাত্র আলোচনা করতে পারবেন নরেন্দ্র মোদি, এমন শর্ত দিয়েই ঢাকায় আসেন মমতা।

২০১১ সালে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সফরে তিস্তা চুক্তির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হলেও মমতার আপত্তির কারণে তা হয়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ