• শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন |

খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে ছেলে-মেয়েদের এগিয়ে নিতে হবে -শিক্ষামন্ত্রী

Education Minister Picমাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর : শিক্ষামন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি বলেছেন, শুধু শিক্ষার মাধ্যমে ছেলে-মেয়েদের এগিয়ে নেয়া যাবে না। ছেলে-মেয়েদেরকে শিক্ষার পাশাপাশি খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডেও এগিয়ে নিতে হবে। তাদের খেলাধূলায় আগ্রহী করে গড়ে তুলতেই এই প্রতিযোগিতার আয়োজন। খেলাধূলায় অংশগ্রহণ করলে শারিরিক বিকাশ ঘটে। তাই লেখা পড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করতে হবে।
তিনি রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় দিনাজপুর গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে ৪৪তম গ্রীষ্মকালীন জাতীয় স্কুল ও মাদরাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণ ও সমাপনী অনুষ্ঠানে অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) প্রফেসর ড. এসএম ওয়াহেদুজ্জামানের সভাপতিত্বে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আরো বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্য দেশ থেকে দারিদ্র ও দুর্নীতি দুর করা। জ্ঞান ও প্রযুক্তি সব চেয়ে হাতিয়ার। আমরা প্রযুক্তিকে মানুষের হাতের কাছে পৌঁছে দিতে চাই। বর্তমান সরকার গতানুগতিক শিক্ষার পরিবর্তে নতুন প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছে। দেশের ২০ হাজার ৫শ’ স্কুলে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম চালু করেছে এবং অচিরেই আরো ৩ হাজার স্কুলে চালু করা হবে।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব অরুণা বিশ্বাস।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, শিক্ষার উন্নতি ছাড়া জাতিকে এগিয়ে নেয়া যাবে না। তাই বর্তমান প্রদানমন্ত্রী শিক্ষাখাতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিয়েছে। বর্তমান সরকারই প্রথমবারের দেশে জাতীয় শিক্ষানীতি চালু করেছে। সোনার বাংলা বিনির্মাণের কারিগর হিসেবে গড়ে তুলতে আজকের ছাত্রছাত্রীদেরকে জ্ঞান-বিজ্ঞানের সর্বোচ্চ শিখরে আরোহন করতে হবে। মাদক ও নেশার পরিবর্তে তাদেরকে খেলাধূলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে হবে।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম, পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন প্রমূখ। অনুষ্ঠানে দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও অন্যান্য কর্মকর্তা, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন জেলার শিক্ষা অফিসার, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ ছাত্র-ছাত্রী ও বিপুল সংখ্যক দর্শক উপস্থিত ছিলেন।
পরে শিক্ষামন্ত্রী অন্যান্য অতিথিদের সাথে নিয়ে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন। সবশেষে দিনাজপুরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদের পরিবেশিত এক মনোজ্ঞ ডিসপ্লে উপভোগ করেন।
উল্ল্যেখ, প্রতিযোগিতায় ৭টি মাদ্রাসাসহ ৪৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় ৪২৪ জন ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ২৬৪জন ছাত্র ও ১৬০ জন ছাত্রী।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ

error: Content is protected !!