• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৯:১৮ পূর্বাহ্ন |

নবাবগঞ্জে এলজিইডির কাজে ব্যাপক অনিয়ম !

picবিশেষ প্রতিনিধ: দিনাজপুরের দক্ষিণাঞ্চলের নবাবগঞ্জ উপজেলায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) অধীনে বিভিন্ন প্রকল্পের ২১ কোটি টাকার কাজের ব্যাপক অনিয়ম দুনীতির অভিযোগ উঠেছে। খোদ নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. বজলুর রশীদ এসব নিন্ম মানের কাজে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। জানা যায়, ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নবাবগঞ্জে বিনোদনগর ইউনিয়নে অংশগ্রহন মূলক ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ প্রকল্পের অধিনে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নলশীষা খাল খননের কাজ চলছে। বিধি অনুযায়ী এসব খাল খননের কাজ পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা সমিতির সদস্য ও এলাকার দুস্থ্য ব্যক্তিদের দিয়ে করার কথা থাকলেও উপজেলা প্রকৌশলী অনিয়ম করে ও একটি মহলের সাথে যোগসাজোশে ড্রেজান মেশিন দিয়ে কেটে বরাদ্দের বেশিরভাগ টাকা ভাগবাটোয়ার করে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এর আগেও একই ভাবে বিনোদনগর ইউনিয়ন এবং শালখুরিয়া ইউনিয়নে সমিতির সদস্য এবং এলাকার দুস্থ্য লোকদের দিয়ে খাল খনন না করে মোটা অংকের টাকা উপজেলা প্রকৌশলী ও তার উপর মহল আত্বসাত করেছেন বলে অনেক তথ্য রয়েছে। এছাড়াও উপজেলায় ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০ কিলোমিটার রাস্তাপাকা করনে, ২ কোটি টাকা ব্যয়ে ১২ কিলোমিটার রাস্তা সংষ্কারে, ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি রেগুলেটর নির্মান কাজে, ৮৮ লাখ টাকা ব্যয়ে দুটি স্কুল ভবন নির্মানে, ১৯ লাখ টাকা ব্যয়ে ব্রীজ কালভার্ট নির্মান করনের কাজে নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহার সহ ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উছেছে। জানতে চাইলে ইউএনও বজলুর রশীদ জানান, উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার কোন কাজে সমন্বয় করেন না। তিনি সরেজমিনে গিয়ে কয়েকটি কাজে নিন্মমানের সামগ্রী ব্যবহারের সত্যতা পেয়েছেন। বিষয়টি তিনি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সচেতন এলকাবাসী এসব অনিয়ম দুর্নীতি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও প্রধান প্রকৌশলীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ