• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৫১ অপরাহ্ন |

বজরাং বাহিনীর সাথে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ২০

file-1-400x225কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি:  খামার স্থাপনে কৃষকদের আবাদী জমি জোড়পূর্বক ক্রয়ের নামে দখল করাকে কেন্দ্র করে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়নের চরকবন গ্রামে জমির দালাল বজরাং বাহিনী ও গ্রামবাসীর মধ্যে শনিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক ব্যাক্তি আহত হয়। আহতদের কিশোরগঞ্জ ও পার্শ্ববর্তী তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে কিশোরগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

গ্রামবাসীর অভিযোগ মহি মিঠু নামে একটি পোল্ট্রি খামার স্থাপনের জন্য চাঁদখানা ইউনিয়নের চরকবন গ্রামে জমি ক্রয়ের নামে জোড়পূর্বক দখলের জন্য বজরাং বাহিনীর আস্তানা গেড়ে বসে। শুরু হয় কৃষকদের আবাদী জমি জবর দখলের মহোৎসব। জমির মালিকরা এতে বাধা দেয়ায় শনিবার সকাল থেকে শুরু হয় দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। বিকাল ৪টার দিকে এটি ভয়াবহ আকার ধারন করলে বজরাং বাহিনী এ সময় বেশ কিছু জমির মালিক কৃষকদের বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালাতে থাকে। গ্রামবাসী জোট বেধে পাল্টা আক্রমণ করে উক্ত খামারের নিরাপত্তা বেষ্টুনীর প্রাচীর ভেঙ্গে দিলে  শুরু হয়  সংঘর্ষ। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক আহত হয়। আহতদের মধ্যে আহসান হাবীব (২৬),রেজওয়ান (২৭),আব্দুল হক (৩৫), মুকুল হোসেন (২৮),সাহের বানু (৩০),বেলাল (৪০),আব্দুল মজিদ (৫০),নজরুল ইসলাম (৪৮),কফিল উদ্দিন (৪৫),বাবুল হোসেন (৩০) ও সোলায়মান আলী (৫০) অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় তাদের কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। অন্যান্যদের কিশোরগঞ্জ ও তারাগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ বজরাং বাহিনীর প্রধান মিজানুর রহমান দুলাল ওরফে বগি দুলালের নেতৃত্বে গ্রামবাসীর উপর হামলা চালানো হয়। চাঁদখানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। কিশোরগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।  গ্রামবাসী মামলা দিলে মামলা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ