• বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন |

আদিবাসী মহিলাকে গনধর্ষনে হত্যা

02-3-16চিরিরবন্দর, (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ চিরিরবন্দরে আদিবাসী মহিলাকে গন ধর্ষনের পর পড়নের শাড়ী দিয়ে ঘরের সিড়িতে ঝুলিয়ে হত্যা করেছে দুবৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ভিয়াইল ইউনিয়নের দূর্গাডাঙ্গা বাজারের পূর্ব পার্শ্বে আদিবাসী পাড়ায়।

জানা গেছে গত সোমবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় হুকুনু মার্ডির পুত্র জনি মার্ডির স্ত্রী এক সন্তানের জননী শ্যামলী হেমব্রম (২০) কে দুবৃত্তরা বাড়ীতে একাকী পেয়ে গনধর্ষন করে পড়নের শাড়ী গলায় পেচিয়ে ঘরের সিড়িতে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীগন খুব সকালে মৃতার সন্তানের কান্নাকাটি শুনে এগিয়ে গিয়ে লাশ নামিয়ে নেয়।

চিরিরবন্দর থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য দিমেক হাসপাতালে প্রেরন করেছে। তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই পলাশ জানান লাশের শরীরে বিভিন্ন স্থানে ও যৌনাঙ্গে রক্ত পাওয়া গেছে। তদন্ত শেষে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। চিরিরবন্দর থানার ওসি মোঃ আনিছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা স্বীকার করে বলেন মরদেহের ময়না তদন্ত রিপোর্ট পেলে মামলা স্বাপেক্ষে প্রকৃত অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

মৃতার স্বামী ভ্যান চালক জনি মার্ডি জানান পার্বতীপুর উপজেলার আমবাড়ী রাধা নগরে বিয়ের দাওয়াত খেতে যাওয়ায় বাড়ীতে স্ত্রী ছাড়া কেহ ছিল না। সংবাদ পেয়ে দ্রুত ছুটে এসে থানায় অবহিত করি। সুরত হালের সময় মরদেহ নাড়াচাড়া কারি শান্তি রায় জানান প্রসাবের রাস্তায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্ত পাওয়া গেছে।

প্রতিবেশি মহিলা মেরিনা সরেন জানান ছোট বাচ্চার কান্নাকাটি শুনে পাড়ার সকলেই ছুটে এসে লাশ নামিয়ে নেয়। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চ্যলের সৃষ্টি করেছে।

 

 

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ