• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:০২ পূর্বাহ্ন |

ডাকাতি শেষে গৃহবধূকে ধর্ষণ

ধর্ষণব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডাকাতির পর তিন সন্তানের জননীকে ধর্ষণ করে ছুরিকাঘাত করেছে ডাকাতরা। আহত ওই গৃহবধূকে বুধবার দুপুরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত ভোররাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার নাটাই (উত্তর) ইউনিয়নের থলিয়ারা গ্রামে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, থলিয়ারা গ্রামের আবদুল মালেক মিয়ার বাড়ির দালান ঘরের কলাপসিবল গেট ও কাঠের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দুই ডাকাত। তারা ঘুমন্ত অবস্থায় থাকা ওই গৃহবধূর দুই হাত, পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে ওই গৃহবধূ দুর্বৃত্তদের মধ্যে কাদির নামে একজনকে চিনে ফেলায় তারা ছুরিকাঘাত করে তাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়।

পরে দুর্বৃত্তরা গৃহবধূর আলমিরা থেকে নগদ তিন লাখ টাকা ও চার ভরি স্বর্ণালংকার ও দুটি মোবাইল ফোনসেট লুটে নেয়। পরে ওই গৃহবধূর আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকায় পাঠান।

ওই গৃহবধূর শাশুড়ি সুফিয়া খাতুন বলেন, কাদের এলাকার চিহ্নিত ডাকাত। তার বাড়ি সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছ গ্রামে। থলিয়ারা গ্রামে তার এক প্রভাবশালী আত্মীয়ের ছত্রচ্ছয়ায় সে এলাকায় ডাকাতি চালাচ্ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মঈনুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ