• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ন |

কুড়িগ্রামে ধর্মান্তরিত খ্রিষ্টানকে গলা কেটে হত্যা

199378_1সিসি নিউজ: কুড়িগ্রাম শহরের গাড়ীয়াল পাড়ার হোসেন আলী (৬৮) নামের এক ধর্মান্তরিত খ্রিষ্টানকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ মঙ্গলবার সকাল সাতটার দিকে বাড়ির কাছাকাছি কুড়িগ্রাম-মোগলবাসা সড়কে এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, নিহত হোসেন আলী একজন মুক্তিযোদ্ধা। তিনি পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, প্রতিদিন সকালে হাঁটতে বের হতেন হোসেন আলী। আজকেও তিনি হাঁটতে বের হন। হাঁটা শেষ করে বাসায় ফেরার পথে সকাল সাতটার দিকে তাঁর গাড়ীয়াল পাড়ার বাড়ি থেকে ২০ গজ মতো দূরে আশরাফিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে একটি মোটরসাইকেলে তাঁর গতি রোধ করে। ওই মোটরসাইকেলে থাকা তিন আরোহীর মধ্যে একজন তাঁর গলা কাটছে দেখে এক পথচারী এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এ সময় তাঁকে ছুরি দেখিয়ে ভয় দেখানো হয়। অপর একজন ককটেল নিক্ষেপ করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। তারপর তিনজন মোটরসাইকেল নিয়ে ঘটনাস্থল ছাড়ে। এ সময় আশপাশের লোকজনের চিৎকারে পূর্ব কলেজ পাড়ার সড়কের অপর মাথায় গাছ ফেলে দুর্বৃত্তদের প্রতিরোধ করার চেষ্টা করা হয়। তবে সেটি সফল হয়নি। এখানেও দুর্বৃত্তরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে পালিয়ে যায়।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। তবে পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

হোসেন আলীর কয়েকজন প্রতিবেশী বলেন, হোসেন আলী প্রায় ১৫ বছর আগে খ্রিষ্টধর্ম গ্রহণ করেন। কারও সঙ্গে তাঁর মনোমালিন্য ছিল না।

নিহতের ছেলে আজাদ বলেন, তাঁদের গ্রামের বাড়ি সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের নয়ারহাট গ্রামে। তাঁর বাবা প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হতেন না। কারও সঙ্গে তাঁর কোনো শত্রুতা ছিল না বলেও তিনি দাবি করেন।

জেলার পুলিশ সুপার তবারক উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তবে উগ্রপন্থী নাকি শত্রুতার কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত ও তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ