• শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৬ অপরাহ্ন |

নীলফামারীতে দশ জনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড

ভ্রাম্যমান-আদালতনীলফামারী প্রতিনিধি: বাল্য বিয়ের আয়োজন করায় নীলফামারীতে কনের বাবাসহ দশজনের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার দুুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক মো. সাবেত আলী ওই দণ্ডদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো সদরের লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের সহদেব বড়গাছা গাইবান্ধা পাড়া গ্রামের কনের বাবা তোরাব আলী (৩০) ও নিকটাত্মীয় ময়নুল ইসলাম (২৮), আবু সায়িদ (৪৩), মনোয়ার হোসেন (২৫) এবং বরের নিকটাত্মীয় দবির উদ্দিন (৩৫), উমর ফারুক (৩৬), আব্দুর রহিম (২৬), আবু বক্কর সিদ্দিক (৪৫), আব্দুল আলিম (২৮) ও সিরাজুল ইসলাম (৩০)।
পুলিশ জানায়, লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের সহদেব বড়গাছা গাইবান্ধা পাড়ার তোরাব আলী অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ের বিয়ের সকল আয়োজন করে শুক্রবার রাতে। ডিমলা উপজেলার বালাপাড়া গ্রামের দক্ষিণ সুন্দরখাতা গ্রাম থেকে বরযাত্রীরা বিয়ের জন্য আসলে গোপন সংবাদের মেয়ের বাবাসহ দশজনকে নিয়ে আসা হয় থানায়।
শনিবার সকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেয়ের বাবাসহ কনে পক্ষের ময়নুল, সায়িদ ও মনোয়ারকে ২৫ দিন এবং বর পক্ষের দবির, উমর, রহিম, বক্কর, আলিম, সিরাজুলকে ১৫ দিন করে কারাদণ্ড প্রদান করেন ইউএনও সাবেত আলী।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান পাশা জানান, মেয়ের বাবা তোরাব আলী ডিমলা উপজেলার মৃত মহি উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলামের (২২) সঙ্গে বিয়ে ঠিক করেছিলো।
দণ্ডপ্রাপ্তদের দুপুরে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান ওসি শাহজাহান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ