• শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪৯ অপরাহ্ন |

রাজারহাট উপজেলা জাপার পাল্টা আহ্বায়ক কমিটি গঠন

জাপারফিকুল ইসলাম, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলা জাতীয় পার্টির বর্তমান সভাপতি খন্দকার মো. আব্দুল হাকিম ও সাধারণ সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন-এর ১০১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির মেয়াদ এখনো সাড়ে ৩ মাস বাকী থাকলেও অতিসম্প্রতি অত্র উপজেলায় জাপার চেয়ারম্যান এরশাদ অনুসারী হিসেবে অপর একটি গ্র“প ৫১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা নিয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জাপা নেতা-কর্মীরা দ্বিধা বিভক্ত হয়ে পড়েছে। নতুন ওই আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক মো. মোবারক আলী ব্যাপারী ও সদস্য সচিব মো. সলিম উদ্দিন স্বাক্ষরিত ৭টি ইউনিয়নে জাপার সম্ভাব্য তাদের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের একটি তালিকা তৈরি করে উপজেলার সর্বত্রে বিতরণ করে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে জাপার পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতৃবৃন্দ ও অনুসারীদের মাঝে বর্তমানে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। বর্তমান বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ্ ও কুড়িগ্রাম-২ আসনের জাপা দলীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরীর ০১৮১৯২৫৪৪০০ নম্বরের মুঠোফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিনিধিকে বলেন, ওই আহ্বায়ক কমিটির কোন ভিত্তি নেই দাবী করে তিনি বলেন, তারা ভূয়া কমিটির কাগজপত্র তৈরি করে নেতা-কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরি করছে মাত্র। কুড়িগ্রাম জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক এসকে বাবু বলেন, বর্তমান রাজারহাট উপজেলা জাতীয় পার্টির পূর্ণাঙ্গ কমিটির মেয়াদ এখনো সাড়ে ৩ মাস বাকী রয়েছে। কয়েকদিন পূর্বে দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এবং কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের মহোদয়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা ৬ মাসের মধ্যে কমিটি গঠনের কথা বলেছেন। তিনি আরও জানান, (আজ সোমবার) রাজারহাট উপজেলা জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থীদের তালিকা কেন্দ্রীয় মহাসচিব স্বাক্ষর করার কথা তিনি জানিয়েছেন। আর আহ্বায়ক কমিটির যারা নেতা দাবী করছে, তারা ভূয়া। রাজারহাট উপজেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক ও এমপির প্রতিনিধি মো. আমজাদ হোসেন বলেন, তারা যে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠনের দাবী করে আসলে তাদের কাছে কোন কমিটির কাগজপত্র নেই। আসলে তারা ভূয়া কমিটি। এরশাদ পন্থি কমিটির দাবীকৃত নতুন আহ্বায়ক  মো. মোবারক আলী ব্যাপারীর সঙ্গে ০১৭১৭১৬৩৩৮৬ নম্বরের তার মুঠোফোনে  এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কয়েকদিন পূর্বে বর্তমান জেলা কমিটির আহ্বায়ক মোস্তাফিজার রহমান  এমপি ও সদস্য সচিব আব্দুল করিম রেজা স্বাক্ষরিত রাজারহাট উপজেলা জাতীয় পার্টির ৫১ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন। তাই আমরা দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীদের তালিকা তৈরি করে জেলা নেতৃবৃন্দের নিকট পাঠিয়েছি। সব মিলিয়ে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজারহাট উপজেলা জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পেতে মনোনয়ন প্রত্যাশিরা পড়েছে চরম বেকায়দায়। এতে করে ইউপি নির্বাচনে জাপায় ভরাডুবির আশংকা করছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তৃণমূল জাপার একাধিক নেতা-কর্মীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ