• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২৭ পূর্বাহ্ন |

ছাত্রী গনধর্ষনের ঘটনায় মাদ্রাসা সুপারকে কারন দর্শানোর নোটিশ

নীলফামারীকিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার ইউসুফিয়া দাখিল মাদ্রাসার গনধর্ষনের শিকার নবম শ্রেনীর ছাত্রীকে চিকিৎসা বা আইনী সহায়তা না দেয়ায় কারন দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে ওই মাদ্রাসার সুপার খন্দকার আব্দুল মান্নানকে। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালকের নির্দেশে ওই মাদ্রাসা সুপারকে কারন দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেন কিশোরগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। আজ বুধবার এ নেটিশ দেয়া হয়। নোটিশে তাকে তিনদিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের ১৬ মার্চ বুধবার মাদ্রাসা ছুটির পর নানার বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষিতার সাথে দেখা হয় তার পূর্ব পরিচিত মারুফুল ইসলাম (৩০) নামের এক পিকআপ চালকের। বাড়িতে পৌছে দেয়ার নাম করে মারুফুল মেয়েটিকে পিকআপে তুলে নেয়। তার পিকআপে পুর্ব হতেই অপর দুই যুবক তার যাত্রী হিসাবে ছিল। তারা তিনজন মিলে মেয়েটিকে অবিলের বাজারের অদুরে এক ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষন করে পালিয়ে যায়। ওই ক্ষেতের পাশ দিয়ে আসা এক পথচারী বিষয়টি দেখতে পেয়ে গ্রামের মানুষকে জানালে মেয়ে পরিবার ও এলাকাবাসী ভুট্টা ক্ষেত থেকে মেয়েটিকে বিবস্ত্র অবস্থায় উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর রাতেই ধর্ষিতাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা জলঢাকা উপজেলার কৈমারী ইউনিয়নের টটুয়াপাড়া গ্রামের ভটভটি চালক মহির আলী বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং-১১, তারিখ-১৭/০৩/২০১৬ ইং।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ