• মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন |

সিলেটে ভূমিকম্পে নার্সিং কলেজের ছাত্রীনিবাসে ফাটল

সিলেটসিলেট: সিলেটে ভূমিকম্পে নার্সিং কলেজের ছাত্রীনিবাসে বড় ধরণের ফাটল ধরেছে। এতে চরম ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে সেখানে অবস্থানরত ছাত্রীরা। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা। গত বুধবার রাতে শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে দেশ।
ছাত্রীনিবাস ঘুরে দেখা যায়, চারতলা ভবনের একাধিক স্থানে ফাটলের সৃষ্টি হয়েছে। দেবে গেছে নীচতলার বারান্দা। ওইদিন ভূমিকম্পের পর ফাটল সৃষ্টি হওয়ায় ছাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ছাত্রীনিবাস ছেড়ে আশপাশে পরিচিতজনদের বাসায় রাতযাপন করে সকালে ফিরে আসেন।
ছাত্রীনিবাসের ভবনে ফাটল দেখা দেওয়ার খবরে ওইদিন রাতেই ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ছাত্রীদের আতঙ্কিত না হয়ে ছাত্রীনিবাসেই থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। তবে কেউ অন্যত্র থাকতে চাইলে বাধা নেই বলেও জানান তারা। তবে পরীক্ষা থাকায় ছাত্রীনিবাস ছেড়ে বাড়িতে যাওয়ারও সুযোগ নেই জানিয়েছেন ছাত্রীরা।
ছাত্রীনিবাস পরিচালনার দায়িত্বে থাকা সানজিদা ইয়াসমিন ও কল্পনা দেবী বলেন, ‘ভবনের ফাটলের বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে। বিষয়টি তারা দেখবেন।’
১৯৮২ সালে সিলেট নার্সিং সেন্টার নামে প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। চারতলা বিশিষ্ট একটি ভবনের নীচতলায় একাডেমিক কার্যক্রম এবং উপরের তিনটি তলায় আবাসনের ব্যবস্থা করা হয়। পরবর্তীতে ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠানটি সিলেট নার্সিং কলেজ নামে যাত্রা শুরু করে। তখন নতুন ভবনও নির্মাণ করা হয়। ওই সময় থেকে পুরনো ভবন পুরোটাই ছাত্রীদের আবাসনের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়। সেখানে ২৫০ জন ছাত্রীর জন্য আবাসন ব্যবস্থা থাকলেও থাকছেন ৩৭৪ জন ছাত্রী।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ