• বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন |

দিনাজপুরে এসআই কান্তির বিরুদ্ধে কাউন্সিলরকে ক্রসফায়ারের হুমকি

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুর কোতয়ালী থানার এসআই কান্তি পৌরসভার ৮নং ওযার্ড কাউন্সিলর কাজী আকবর হোসেন অরেঞ্জকে ক্রস ফায়ারে হত্যার হুমকি প্রদান করেছে মর্মে অভিযোগ করেছেন কাজী আকবর হোসেন অরেঞ্জ।
রোববার (৬ আগষ্ট) দুপুর ১২টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। এক লিখিত বক্তব্যে কাউন্সিলর অরেঞ্জ বলেন, চলতি বছরের ২২ এপ্রিল রাতে এসআই বিপ্লব কান্তি তিনজন মোটর শ্রমিককে মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে চিহ্ণিত করে আটক করেন এবং তাদের নিকট উৎকোচ দাবী করেন। এতে এলাকাবাসি ক্ষিপ্ত হয়ে এসআই বিপ্লবের উপর চড়াও হয়। বিপ্লব থানায় খবর দিলে পুলিশের একটি ভ্যান ঘটনাস্থলে এসে আটক তিনজনকে এবং সেই সাথে আমাকে (কাজী আকবর হোসেন অরেঞ্জ) আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে থানায় নিয়ে যায়। মোটর শ্রমিকের খবর পেয়ে থানায় যায় এবং আটক তিন মোটর শ্রমিমকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। তবে থানা কর্তৃপক্ষ কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তার উপর হামলার অভিযোগে আমাকে আটকে রাখে ও পরদিন কোর্টে চালান দেয়। পলিশ আদালতের কাছে আমার ১০ দিনের রিমান্ড দাবী করেন। কিন্তু বিজ্ঞ আদালত রিমান্ড আবেদন না মঞ্জুর করে আমাকে জামিন দেন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, গত ৩১ জুলাই এসআই বিপ্লব কান্তি লাইনপার এলাকার ২৫ জন নারী-পুরুষকে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের কমিটি গঠনের কথা বলে এসপি অফিসে নিয়ে যান। কিন্তু সেখানে নিয়ে কাউন্সিলর কাজী আকবর হোসেন অরেঞ্জের বিরুদ্ধে বানোয়াট একটি অভিযোগ সম্বলিত আবেদনে স্বাক্ষর নেয়ার অপচেষ্টা চালান এসআই বিপ্লব। ২৫ জনের মধ্যে ৮ জনের স্বাক্ষর নেয়া সম্ভব হলেও অন্যরা স্বাক্ষর করেনি। এতে এসআই বিপ্লব আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।
তিনি আরো বলেন, এসআই বিপ্লব কান্তি মাদকবিরোধী অভিযানের নামে রমরমা বানিজ্য চালিয়ে আসছেন। মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে যাদের তিনি আটক করেন তাদের নিকট হতে মোটা অংকের উৎেকোচ দাবী করেন। এই দাবী যারা পূরণ করেন তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। আর যারা পূরণ করতে পারেননি তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে জেলে পাঠানো হয় এবং কঠোর চার্জশীট দেয়া হয়।
গত ২ আগষ্ট রাত আনুমানিক ৯টার সময় এসআই বিপ্লব পুলিশের পিকআপ ভ্যান নিয়ে ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে এসে হাজির হন। পুলিশ ভ্যান থেকে নেমে আমার কাছে এসে এই বলে হুমকি দেন যে, আগেরবার বেঁচে গিয়েছিস, এবার ক্রস ফায়ারের জন্য তৈরী থাকো। এই ঘটনার পর হতে আমি চরম নিরাপত্তহীনতায় ভুগছি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি নিপিড়ক পুলিশ কর্মকর্তার বিপ্লব কান্তির বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দিনাজপুর পুলিশ সুপার, রংপুর বিভাগের ডিআইজি, আইজিপি ও স্বরাষ্টমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ কামনা করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে মোঃ রিয়াজুল ইসলাম, সিদ্দিক হোসেন, পিয়ার আলী, সিরাজুল ইসলাম ও মুজাম উদ্দীন, মো. আবু সাঈদ, মো. রুকন, ফাতেমা, ময়না, রনি, কাঞ্চন, অন্তর, মিন্টু, অঞ্জু, নুর হোসেনসহ এলাকার ১৫-২০ জন লোক উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ