• মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:০৮ অপরাহ্ন |

মৌলভীবাজারের বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি

সিসি ডেস্ক, ১৭ জুন: ঈদের আনন্দ সারাদেশে। তবে ৩ জেলার পানিবন্দি কয়েক লাখ মানুষের জীবন কাটছে চরম দুর্ভোগে। মনু নদের বাঁধ ভেঙে নতুন করে প্লাবিত হয়েছে মৌলভীবাজার জেলা শহর। ফলে ঈদ উদযাপন দূরের কথা, দুর্গত মানুষ রয়েছে ত্রাণের প্রতীক্ষায়।
টানা বৃষ্টি আর পাহাড়ি ঢলে মৌলভীবাজারের বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। মনু ও ধলাই নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে। কমলগঞ্জ উপজেলার নয়াগাঁও গ্রামে পানিতে ডুবে মারা গেছেন সাত্তার মিয়া ও তার ছেলে করিম মিয়া। শিংলাউড়ি গ্রামে পানিতে ডুবে যাওয়া জামাল মিয়ার মরদেহও উদ্ধার হয়েছে শনিবার।
বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় মৌলভীবাজারে কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী। এই দুর্যোগে ঈদের খুশি ম্লান হয়ে গেছে প্লাবিত এলাকায়।
ফেনীর পরশুরাম ও ফুলগাজীতে ডুবে গেছে ঈদগাহ পানি ঢুকেছে মসজিদে। এ দুটি উপজেলার বেশিরভার জায়গায় হয়নি ঈদের জামাত। দুর্গত মানুষ অপেক্ষা করছে সরকারি ত্রাণের।
চট্টগ্রামে পানির নীচে রাউজানের ১০ ইউনিয়ন। এছাড়া হাটহাজারির ৮টি এবং ফটিকছড়ির ৩টি ইউনিয়নও প্লাবিত। বাসিন্দাদের ঈদের আনন্দ ভাসিয়ে নিয়েছে বন্যার পানি।
বন্যার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড ও জেলা প্রশাসনের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

উৎস: ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ