• শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন |

পোল্যান্ডের বিদায়ে টিকে রইলো কলম্বিয়া

খেলাধুলা ডেস্ক: গতবারের কোয়ার্টার ফাইনালিস্ট কলম্বিয়া। একাই দলকে টেনে নিয়েছিলেন হামেস রড্রিগেজ। যার সুফল হিসেবে মিলেছিল গোল্ডেন বুট। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত নিজের ছায়া হয়ে রয়েছেন তিনি। উভয় দলই তাদের প্রথম ম্যাচে পরাজিত হয়েছিল। কলম্বিয়া হেরেছিল জাপানের কাছে আর পোল্যান্ড হেরেছিল সেনেগালের কাছে। তাই আজ উভয় দলের জন্যই ছিল ডু অর ডাই ম্যাচ। যে জিতবে সেই টিকে থাকবে নক আউট পর্বে যাওয়ার রেসে। অবশেষে ইয়ারি মিনা, রাদামেল ফ্যালকাও ও হুয়ান কুয়াদরাদোর গোলে জয় পায় কলম্বিয়া।

আর এ জয়ের মাধ্যমে এবারের বিশ্বকাপে আর্জেন্টাইন প্রথম কোচ হিসেবে জয় পেলেন জোসে পেকারম্যান। এবারের বিশ্বকাপে পাঁচজন কোচ ছিলেন আর্জেন্টাইন বংশদ্ভূত। যারা কোনো ম্যাচে জয় দেখেনি। সেই ধারা ভাঙলেন পেকারম্যান।

এই জয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার লড়াইয়ে টিকে আছে সেনেগাল, জাপান ও কলম্বিয়া। সেনেগাল ও জাপানের পয়েন্ট এখন চার করে। আর কলম্বিয়ার পয়েন্ট তিন। কলম্বিয়া যদি আগামী ম্যাচে সেনেগালকে হারাতে পারে তাহলে তারা দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে যাবে। আবার সেনেগাল যদি কলম্বিয়াকে হারাতে পারে তাহলে সেনেগাল দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে। বাদ পড়বে কলম্বিয়া। আর জাপান যদি পোল্যান্ডকে হারাতে পারে তাহলে জাপান দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে যাবে।

দিনের শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা অনুষ্ঠিত হয় কাজানে। বিশ্বকাপ ইতিহাসে কখনও গোলশূন্য ড্র করেনি কলম্বিয়া। এই সমীকরণই আশা জাগাচ্ছিল, গোল হতে যাচ্ছে এই ম্যাচে। শুরুর ত্রিশ মিনিট কোনো দলই তেমন শট নিতে পারেননি গোলমুখে। সুযোগ তৈরি করলেও নিখুঁত ফিনিশিংয়ের অভাবে গোল করতে পারছিল না কোনো দলই।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে ম্যাচের ৪০ মিনিটে গোলের দেখা পায় কলম্বিয়া। কর্নার থেকে ফ্যালকাও কোয়াদ্রাদোকে পাস দিলে, তিনি পাঠান হামেসের কাছে। হামেস রড্রিগেজের নিখুঁত ক্রসে দারুণ হেডে গোল করে কলম্বিয়াকে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন চলতি বছরেই বার্সায় যোগ দেয়া হলুদ জার্সিধারীদের রক্ষণভাগের কাণ্ডারি ইয়ারি মিনা। প্রথমার্ধে দু’দল মিলে ওই একটি শটই গোলমুখে নিতে পেরেছে যেটিতে গোল হয়েছে। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় কলম্বিয়া।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই বেশ গোছালো ফুটবল খেলতে থাকে কলম্বিয়া। ৫২ মিনিটে কুয়াদ্রাদোর পাস থেকে মাত্র ১৬ গজ দূর থেকে শটে গোল করতে ব্যর্থ হন ফ্যালকাও। অবশেষে ফ্যালকাও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পান ৭০তম মিনিটে। কুইন্তেরোর কাছ থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের উল্টো পাশ দিয়ে দারুণ শটে গোল করেন রাদামেল ফ্যালকাও। বিশ্বকাপে এটি তার প্রথম এবং কলম্বিয়ার জার্সি গায়ে ৩০তম গোল। জাতীয় দলের হয়ে তার থেকে বেশি গোল করতে পারেনি আর কেউ।

এর মিনিট পাঁচেক পর কুয়াদ্রাদোর গোলটাও কি কম সুন্দর! রদ্রিগেজের বাড়িয়ে দেয়া লম্বা পাসটা কী দারুণভাবে জড়িয়ে দিলেন জালে। ম্যাচে জোড়া এসিস্ট করলেন গত মৌসুম লোনে বায়ার্নে খেলা এই তারকা। ম্যাচের ৮৮ মিনিটে ২২ গজ দূর থেকে দূরপাল্লার শট নিলেও গোলের দেখা পাননি এই স্ট্রাইকার। ৩-০ ব্যবধানে হেরে এক ম্যাচ হাতে থাকতেই বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় পোল্যান্ড। অন্যদিকে এই জয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডের আশা টিকে রইল কলম্বিয়ার। শেষ ম্যাচে সেনেগালকে হারাতে পারলেই পরের রাউন্ডে উঠে যাবে তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ