ফুলেল শ্রদ্ধায় সিক্ত আইয়ুব বাচ্চু

 
 

সিসি নিউজ, ১৯ অক্টোবর।। শেষবারের মতো বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন হাজারো ভক্ত-অনুরাগীরা।
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে শুক্রবার সকাল সোয়া ১০টায় নেওয়া হয় আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ। সেখানে সর্বস্তরের মানুষের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন এ গিটার জাদুকর। মরদেহে শ্রদ্ধা জানায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, অভিনয় শিল্পী সংঘ, ডিরেক্টরস গিল্ডসহ অনেক সংগঠন।
আইয়ুব বাচ্চুকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা নিবেদন করতে শহীদ মিনারে আসেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। আবেগাপ্লুত হওয়ার কারণে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলতে পারেননি আসাদুজ্জামান নূর। তাই শ্রদ্ধা জানানো শেষ হলেই সেখান থেকে চলে যান তিনি।
এছাড়া সুবর্ণ মুস্তাফা, আফজাল হোসেন, তপন চৌধুরী, হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল, নকীব খান, ফুয়াদ নাসের বাবু, সাঈদ হাসান টিপুসহ আরো অনেক ব্যক্তিত্ব। ছিলেন নানা পেশা, বয়স-শ্রেণির মানুষ। পরে এক মিনিট নীরবতার মাধ্যমে শেষ হয় শেষ শ্রদ্ধার পর্ব।
দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে। সেখানে জুমার নামাজের পর তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে, অস্ট্রেলিয়া ও কানাডা থেকে আইয়ুব বাচ্চুর মেয়ে ফাইরুজ সাফরা আইয়ুব ও ছেলে আহনাফ তাজোয়ার আইয়ুব দেশের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। তারা এলে আগামীকাল শনিবার চট্টগ্রামে শেষ জানাজা শেষে মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন আইয়ুব বাচ্চু।
প্রসঙ্গত, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়ার পথে বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মারা যান। ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন আইয়ুব বাচ্চু। চলো বদলে যাই, ফেরারি মন, এখন অনেক রাত, হকার, আমি বারো মাস তোমায় ভালোবাসি, বাংলাদেশসহ অসংখ্য জনপ্রিয় গানের স্রষ্টা তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
error: Content is protected !!