হলদিবাড়ি-চিলাহাটি রেল যোগাযোগের কাজ শেষ পর্যায়ে

 
 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ২৭ নভেম্বর।। ভারতের কোচবিহার জেলার হলদিবাড়ি এবং বাংলাদেশের নীলফামারি জেলার চিলাহাটির মধ্যে রেল সংযোগ শুরু করার কাজ চলছে দ্রুতগতিতে। সেই হিসেবে বাংলাদেশের সাথে শিলিগুড়ি হয়ে শৈল শহর দার্জিলিংয়ের যোগাযোগ এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা।

যদিও কলকাতা থেকে দার্জিলিংগামী অনেক ট্রেন এই রুটে চলত। ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধের পর এই রেল যোগাযোগ  বিচ্ছিন্ন  হয়ে যায়।

পুরনো সেই দিনের কথা মনে রাখতে এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরো উন্নত  করতে, ভারত এবং বাংলাদেশের সরকার এই রুটে রেল যোগাযোগ চালু করতে ২০১১ সাল থেকে বদ্ধপরিকর।

ভারতীয় রেলের এক কর্মকর্তা বলছেন, হলদিবাড়ি থেকে বর্ডারের জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত ৩ কি মি  রেল লাইন পাতার কাজ শেষ এবং আমরা পরীক্ষামূলকভাবে রেল চালিয়েছি … ২০১৯ সালের শুরুর দিকে এই রেল যোগাযোগ পুরোদমে চালু হয়ে যাবে আশা করি।

তিনি জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে প্রায় ৪২ কোটি  ইন্ডিয়ান রুপি খরচ করে হলদিবাড়ি স্টেশনে দু’টি  নতুন প্লাটফর্ম, টিকেট কাউন্টার, প্রতিক্ষালয় এবং রেল কর্মচারীদের জন্য অফিস তৈরি করা হয়েছে। হলদিবাড়িকে একটি আন্তর্জাতিক মানের স্টেশন  তৈরি করার চেষ্টা হচ্ছে।

তার মতে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে কাজ অনেক এগিয়ে গেছে। চিলাহাটি থেকে বর্ডারের জিরো পয়েন্ট কেবল ৭ কিমি এবং এই রুটে চলাচলের উপযোগী  করার জন্য বাংলাদেশ সরকার প্রায় ৮০ কোটি টাকা বাজেট বরাদ্দ করেছেন।

‘বাংলাদেশের দিকেও কাজ অনেক এগিয়েছে … সেখানে  সামনেই  নির্বাচন, তার পরেই বাকি সব কাজ শেষ  হবে এবং এই রুটে রেল  চলাচলের স্বপ্ন পুরণ হবে,’ বলে মন্তব্য করেছেন এক রেল কর্মকর্তা।

ভারত এবং বাংলাদেশের  সাথে নেপাল এবং ভুটানের বাণিজ্য এই রেল যোগাযোগের মাধ্যমে  বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন  শিলিগুড়ির এক ব্যবসায়ী।

তবে সব থেকে সুখবর ভ্রমণ  পিপাসু  বাঙালিদের জন্য। কারণ অনেক সহজেই পৌঁছে যাওয়া যাবে শিলিগুড়ি।  যেখান থেকে  পাহাড়ে ঘুরতে যাবার পরিকল্পনা করা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

 
 
 
 
 
 
 
Mature Webcam Live Cams Telegraph Theme