ডিমলায় জাফর ইকবালের প্রচারনায় হামলার অভিযোগ

 
 

নীলফামারী, ১৮ ডিসেম্বর॥ নির্বাচনী প্রচারনার সময় লাঙ্গল প্রতিকের প্রার্থী জাফর ইকবাল সিদ্দিকীর জনসংযোগে হামলা করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) বেলা ১২টার দিকে নীলফামারী-১ আসনের ডিমলা উপজেলার কাউশা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।
ওই আসনের লাঙ্গল প্রতিকের প্রার্থী সাবেক সংসদ সদস্য জাফর ইকবাল সিদ্দিকী অভিযোগ করে সাংবাদিকদের জানায়, জনসংযোগের সময় ডিমলা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ফেরদৌস পারভেজের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। এ সময় তিনি রক্ষা পেলেও আহত হয় তার দুইজন সমর্থক। 

আহতদের মধ্যে মিজানুর রহমান(২৮), রবিউল ইসলাম(২৪)কে ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে।
তিনি আরো জানান, ভোটের মাঠে তার জনপ্রিয়তা শীর্ষে থাকায় আসনটি মহাজোটের পক্ষে উম্মুক্ত রাখা হয়েছে। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি আফতাব উদ্দিন সরকার। তার ভাতিজা ফেরদৌস পারভেজ ২০/২৫জন সহ লাঠি সোডা নিয়ে হামলা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।
জাফরের জনসংযোগে হামলার প্রতিবাদে ডোমার এবং ডিমলা উপজেলা শহরে ও প্রতিটি ইউনিয়নে বিকালে বিক্ষোভ মিছিল করেছে হাজার হাজার সমর্থকরা। বিক্ষোভকারীরা আফতাব উদ্দিন সরকারের জনপ্রিয়তা শুন্যের কোঠায় আখ্যা দিয়ে তাকে নির্বাচন থেকে প্রত্যাহারের দাবি করেছে জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে।
এদিকে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আফতাব উদ্দিন সরকার সাংবাদিকদের বলেন, তিনি (জাফর) ডিমলা আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে পথ সভায় আমাকে নিয়ে অকথ্য ভাবে কথা বলায় নৌকার সমর্থকরা তাদের ধাওয়া করেছে। এখানে আমার জনপ্রিয়তা অনেক বেশী। আমাকে হেয় করার অপচেষ্টা করা হচ্ছে।
ডিমলা থানার ওসি মফিজ উদ্দিন শেখ বলেন, সামান্য অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছিল। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি।

Print Friendly, PDF & Email